advertisement
advertisement
advertisement
advertisement

ইতালিতে কন্টেইনারবাহী বাংলাদেশি জাহাজকে স্বাগত জানালেন রাষ্ট্রদূত

ইতালি প্রতিনিধি
১২ আগস্ট ২০২২ ০৭:৪৪ পিএম | আপডেট: ১২ আগস্ট ২০২২ ০৮:০২ পিএম
কন্টেইনারবাহী বাংলাদেশি জাহাজকে স্বাগত জানালেন ইতালি রাষ্ট্রদূত। ছবি : সংগৃহীত
advertisement

ইতালির অন্যতম সমুদ্র বন্দর রাভেন্নায় কন্টেইনারবাহী জাহাজ ‘এমভি কেইপ ফ্লোরেস ভয়েজ ০০৭ ডব্লিউ’-কে স্বাগত জানিয়েছে ইতালি, মন্টেনিগ্রো ও সার্বিয়ায় নিযুক্ত বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত মো. শামীম আহসান।

গত বুধবার স্থানীয় সময় সকাল ১১টার দিকে জাহাজটি ইতালিতে পৌঁছায়। চট্টগ্রাম বন্দর থেকে গত ২৪ জুলাই রওনা দিয়ে মাত্র ১৮ দিনেই ৫০৭টি কন্টেইনার বহনকারী এই জাহাজটি বাংলাদেশি তৈরি পোশাক, চামড়াজাত দ্রব্যাদি নিয়ে সরাসরি ইতালির বন্দরে নোঙর করে।

advertisement 3

রাষ্ট্রদূত এটিকে আনন্দ আর গর্বের এক বিশেষ মূহুর্ত আখ্যা দিয়ে ক্যাপ্টেন লিওপোলদো জোভিতো মস্কার থেকে কন্টেইনারগুলো গ্রহণ করেন। ঐতিহাসিক এই মূহুর্তে রাভেন্না বন্দরের প্রেসিডেন্ট জিয়ানানতোনিও মিনগোজ্জি এবং ‘রিফলাইন ইতালি’র প্রেসিডেন্ট জর্জিও ভরিয়া উপস্থিত ছিলেন।

advertisement 4

এ সময় রাভেন্না বন্দরের স্থানীয় জ্যেষ্ঠ কর্মকর্তা পাওলো ফেরান্দিনো এবং ডেপুটি মেয়র মিজ্ ইউজেনিও ফুসিনানির সঙ্গে সাক্ষাত করেন রাষ্ট্রদূত শামীম আহসান। বন্ধুপ্রতিম দুদেশের কূটনৈতিক সম্পর্কের পঞ্চাশ বছর পূর্তিতে জাহাজ চলাচলে সন্তোষ প্রকাশ করেন রাষ্ট্রদূত। এ উদ্যোগের অর্থনৈতিক কার্যকারিতা নিশ্চিত করে দুদেশের পারস্পরিক সুবিধা বাস্তবায়নের লক্ষ্যে সার্বিক সহযোগিতার হাত বাড়িয়ে দেবেন বলে আশ্বাস দেন রাষ্ট্রদূত।

চলতি বছরের ফেব্রুয়ারি থেকে বাংলাদেশ-ইতালি রুটে শুরু হয় সরাসরি জাহাজ চলাচল। জাহাজ চলাচলের এ কার্যক্রমের মধ্য দিয়ে বাংলাদেশ-ইতালির বাণিজ্যিক সম্পর্কের এক নতুন দিগন্ত উন্মোচিত হলো। যা দুদেশের মধ্যে আমদানি-রপ্তানি, বিশেষ করে ইতালিসহ ইউরোপের অন্যান্য দেশে তৈরি পোশাক রপ্তানি বহুগুণে বেড়ে যাবে। এ উদ্যোগের ফলে দুদেশের মধ্যে মালামাল পরিবহনের ব্যয় ৪৫-৫০ শতাংশ কমে যাবে বলে মনে করছেন সংশ্লিষ্টরা।  

advertisement