advertisement
advertisement
advertisement
advertisement

চাঁদে যাওয়ার নতুন তারিখ জানাল নাসা

অনলাইন ডেস্ক
৩১ আগস্ট ২০২২ ০৫:৪৮ পিএম | আপডেট: ৩১ আগস্ট ২০২২ ০৬:১২ পিএম
ফ্লাইটটি তৈরি করতে এক দশক সময় লেগেছে
advertisement

মার্কিন গবেষণা সংস্থা নাসার বিজ্ঞানীরা নতুন করে চন্দ্র মিশন শুরুর জন্য আবার তারিখ ঘোষণা করেছে। নতুন ঘোষণায় আগামী শনিবার আরটেমিস-ওয়ানের রকেট এসএলএস উৎক্ষেপণ করা হবে।

এর আগে গত সোমবার এই রকেট উৎক্ষেপণের কথা ছিল। কিন্তু যন্ত্রের ত্রুটির কারণে শেষ মুহূর্তে তা বাতিল করা হয়।

advertisement 3

ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম বিবিসি জানিয়েছে, এসএলএস নাসার তৈরি এ পর্যন্ত সবচেয়ে শক্তিশালী মহাকাশ যান। চাঁদে মানবজাতির অবতরণের ৫০ বছর পর আবার মানুষকে চন্দ্রপৃষ্ঠে ফিরিয়ে নিয়ে যাওয়ার এই প্রকল্পটির নাম ‘আর্টেমিস’।

advertisement 4

যুক্তরাষ্ট্রের ফ্লোরিডার কেনেডি স্পেস সেন্টার থেকে এই এসএলএসটি উৎক্ষেপণ করা হবে। যাত্রা শুরুর পর যানটি দুই ঘণ্টার মধ্যে পৃথিবীর বায়ুমণ্ডল ত্যাগ করবে।

ইরানের সংবাদমাধ্যম পার্স টুডের প্রতিবেদনে বলা হয়, নাসার নতুন চন্দ্র অভিযানের ম্যানেজার মাইক সারাফিন রকেট উৎক্ষেপণের নতুন তারিখ ঘোষণা করেছেন। গতকাল মঙ্গলবার এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি এই ঘোষণা দেন।

মাইক সারাফিন বলেন, আরমেটিস টিমের সদস্যরা দিনের প্রথম ভাগে রকেট উৎক্ষেপণের সময়সূচি ঠিক করার বিষয়টি নিয়ে বৈঠক করেন। বৃহস্পতিবার রকেটের ফ্লাইট এবং সামগ্রিক প্রস্তুতি পর্যালোচনা করা হবে। রকেটের ক্যাপসুলে যে ছিদ্র দেখা গিয়েছিল সেগুলোও সারানো হচ্ছে। সবকিছু ঠিক থাকলে আগামী শনিবার রকেট উৎক্ষেপণ করা হবে।

অ্যাপোলো-১১ রকেটে চড়ে ১৯৬৯ সালে চাঁদে প্রথমবারের মতো মানুষ পা রাখে। ওই ঘটনার অর্ধশতাব্দী পরের এই উৎক্ষেপণ নাসার জন্য একটি বড় ঘটনা হতে যাচ্ছে।

নাসা বলছে, তাদের নতুন প্রযুক্তি ‘আর্টেমিস প্রোগ্রাম’ নিয়ে ফিরে আসছে, যার প্রযুক্তি আধুনিক যুগকে সমৃদ্ধশালী করবে। এই চন্দ্রাভিযানকে নাসা মঙ্গল গ্রহে যাওয়ার একটা প্রস্তুতি হিসেবে দেখছে। তারা আশা করছে, ২০৩০ সাল নাগাদ বা তার পরপরই তারা মহাকাশচারীদের মঙ্গল গ্রহে পাঠাবে।

advertisement