advertisement
advertisement
advertisement
advertisement

স্বামীর লাথিতে রক্তাক্ত স্ত্রী, হাসপাতালে গেল প্রাণ

চকরিয়া (কক্সবাজার) প্রতিনিধি
১৭ সেপ্টেম্বর ২০২২ ০৯:২৩ পিএম | আপডেট: ১৭ সেপ্টেম্বর ২০২২ ১০:০২ পিএম
প্রতীকী ছবি
advertisement

কক্সবাজার চকরিয়া উপজেলার খুটাখালীতে কাটাকাটির জেরে স্ত্রী পারভীন আক্তারের (২১) তলপেটে লাথি মেরে হত্যা করেছেন বলে অভিযোগ উঠেছে মোহাম্মদ সোহেলের বিরুদ্ধে। আজ শনিবার বেলা ১২টার দিকে চিকিৎসাধীন অবস্থায় পারভীন মারা যান তিনি।

পারভীন চকরিয়ার খুটাখালী ইউনিয়নের ৩ নম্বর ওয়ার্ডের মেধাকচ্ছপিয়ার মোখলেছুর রহমানের মেয়ে। স্বামী মোহাম্মদ সোহেল (২৭) কক্সবাজারের রামু উপজেলার রাজারকুল ইউনিয়নের বাসিন্দা। 

advertisement 3

স্থানীয়রা জানান, এক বছর আগে সোহেলের সঙ্গে বিয়ে হয় পারভীনের। বিয়ের পর তারা প্রথমে পারভীনের বাবার বাড়িতে থাকতেন। চার মাস আগে খুটাখালী বাজার সংলগ্ন একটি বাসা ভাড়া নিয়ে থাকতে শুরু করেন সোহেল ও পারভীন।

advertisement 4

সোহেল বাজারে ঝালমুড়ি বিক্রি করতেন। গতকাল রাতে কথা কাটাকাটির একপর্যায়ে পারভীনের তলপেটে লাথি মারেন সোহেল। এতে পারভীনের রক্তক্ষরণ হলে সোহেল ঘর থেকে বের হয়ে যান। পারভীনের চিৎকার শুনে প্রতিবেশীরা এগিয়ে আসেন। তারা পারভীনকে উদ্ধার করে কক্সবাজার সদর হাসপাতালে ভর্তি করেন। ঘটনার ১৪ ঘণ্টা পর আজ দুপুর ১২টার দিকে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান পারভীন।

চকরিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) চন্দন কুমার চক্রবর্তী বলেন, ‘হাসপাতালে পারভীনের মৃত্যুর খবর শোনার পর স্থানীয়রা সোহেলকে আটক করে আমাদের কাছে হস্তান্তর করে। মরদেহ হাসপাতাল থেকে পুলিশ জিম্মায় নিয়ে ময়নাতদন্ত করা হবে। আটক সোহেলের বিরুদ্ধে আইনি ব্যবস্থা নেওয়া হবে।’

advertisement