advertisement
advertisement
advertisement
advertisement

রওশন এরশাদের চিঠি আমলেই নিচ্ছে না জাপা

নিজস্ব প্রতিবেদক
২২ সেপ্টেম্বর ২০২২ ০৭:৫৮ পিএম | আপডেট: ২৩ সেপ্টেম্বর ২০২২ ০৮:২৪ এএম
জাতীয় পার্টির (জাপা) মহাসচিব মো. মুজিবুল হক চুন্নু। পুরোনো ছবি
advertisement

জাতীয় পার্টির (জাপা) মহাসচিব মো. মুজিবুল হক চুন্নু বলেছেন, ‘জাতীয় পার্টির প্রধান পৃষ্ঠপোষক রওশন এরশাদ পার্টির বিরুদ্ধে স্বেচ্ছায় কিছু করছেন বলে বিশ্বাস করি না। তবে, ম্যাডাম তার ছেলে ও আরও দু-এক জনের কাছে জিম্মি হয়ে পড়েছেন।গতকাল বেগম রওশন এরশাদের যে চিঠি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল হয়েছে, সেই চিঠি আমরা আমলেই নিচ্ছি না।’

আজ বৃহস্পতিবার দুপুরে জাপা চেয়ারম্যানের বনানী কার্যালয় মিলনায়তনে উপস্থিত সংবাদকর্মীদের বিভিন্ন প্রশ্নের উত্তরে এ কথা বলেন মুজিবুল হক চুন্নু।

advertisement 3

এক প্রশ্নের জবাবে জাপা মহাসচিব মো. মুজিবুল হক চুন্নু বলেছেন, ‘জাতীয় পার্টির গঠনতন্ত্র ও ২০ ধারা নিয়ে মশিউর রহমান রাঙার কথা বলা স্ববিরোধী। পল্লীবন্ধু হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ এই ধারা ব্যবহার করে সাবেক মহাসচিব এ বি এম রুহুল আমিন হাওলাদারকে সরিয়ে মশিউর রহমান রাঙাকে মহাসচিব করেছিলেন। তখন তিনি গঠনতন্ত্রের ওই ধারার সুবিধাভোগী হয়েছেন। তখন তো মশিউর রহমান রাঙা গঠনতন্ত্রের এই ধারার বিরোধীতা করেনি।’

advertisement 4

এ বিষয়ে জাপা মহাসচিব আরও বলেন, ‘তাছাড়া, ২০১৮ সালের কাউন্সিলের আগে মহাসচিব ছিলেন, কাউন্সিলে গঠনতন্ত্র অনুমোদন হয়েছে সেই প্রক্রিয়ার সময় এবং কাউন্সিল পরবর্তী প্রায় দুই বছর এই গঠনতন্ত্র মেনেই মহাসচিবের দায়িত্ব পালন করেছেন মশিউর রহমান রাঙা। তিনি কখনোই এই গঠনতন্ত্রের কোনো ধারার বিরোধিতা বা আপত্তি করেননি।’

এসময় মুজিবুল হক চুন্নু বলেন, ‘জাতীয় পার্টির গঠনতন্ত্র নির্বাচন কমিশন এবং ওয়েবসাইটে দেওয়া আছে। প্রয়োজন হলে যে কেউ দেখে নিতে পারেন।’

সাংবাদিকদের অপর এক প্রশ্নের জবাবে জাপা মহাসচিব বলেন, ‘গোলাম মোহাম্মদ কাদেরের নেতৃত্বে ঐক্যবদ্ধ আছে জাতীয় পার্টি। জাতীয় পার্টিতে কোনো বিভেদ নেই। কোনো ষড়যন্ত্রই জাতীয় পার্টির ঐক্যে ফাটল ধরাতে পারবে না।’

এর আগে গতকাল বুধবার এক চিঠিতে বাদ পড়া নেতাদের দলে ফেরানোর আহ্বান জানিয়ে চিঠি পাঠান জাপার প্রধান পৃষ্ঠপোষক রওশন এরশাদ। 

advertisement