advertisement
advertisement
advertisement
advertisement

দীর্ঘ হচ্ছে লাশের সারি, মৃত বেড়ে ৬৪

পঞ্চগড় প্রতিনিধি
২৭ সেপ্টেম্বর ২০২২ ১২:০৯ পিএম | আপডেট: ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২২ ০৭:০৭ পিএম
করতোয়া নদীর তীরে স্বজনদের ভিড়। ছবি: আমাদের সময়
advertisement

পঞ্চগড়ের বোদা উপজেলায় করতোয়া নদীতে নৌকাডুবির ঘটনায় আজ মঙ্গলবার সকাল থেকে ১৪ জনের লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। এ নিয়ে মোট ৬৪ জনের লাশ উদ্ধার করা হলো।

পঞ্চগড় ফায়ার সার্ভিস অ্যান্ড সিভিল ডিফেন্সের সহকারী উপপরিচালক শেখ মো. মাহাবুবুল ইসলাম জানান, মঙ্গলবার সকালে তৃতীয় দিনের মতো উদ্ধার অভিযান শুরু করা হয়। নদীর বিভিন্ন এলাকা থেকে প্রথমে ছয় জনের লাশ পাওয়া গেছে। পরে আরও ১০ জনের লাশ উদ্ধার করা হয়। এ নিয়ে মৃতের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ৬০ জনে।

advertisement

তিনি আরও জানান, ৬৪ জনের মধ্যে নারী ৩০ জন, পুরুষ ১৫ জন ও ১৯ জন শিশু রয়েছে। এ ঘটনায় এখনো ১৫ জন নিখোঁজ রয়েছেন।

advertisement 4

এর আগে নৌকাডুবির ঘটনায় রোববার ২৪ জনের লাশ উদ্ধার করা হয়। পরদিন সোমবার আরও ২৬ জনের লাশ উদ্ধার করা হয়। আজ দুপুর ১টা পর্যন্ত ১৪ জনের লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। এখনো কমপক্ষে ১৫ জন নিখোঁজ রয়েছেন।

আরও পড়ুন : নৌকাডুবি: আরও ৬ লাশ উদ্ধার, মৃত বেড়ে ৫৬

পঞ্চগড়ের অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (রাজস্ব) ও অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট দীপঙ্কর রায় জানান, অতিরিক্ত যাত্রী বহন ও নৌকার মাঝির গাফিলতির কারণে এতো মানুষের প্রাণহানি ঘটেছে। ৪৩ জনের লাশ পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে। লাশ সৎকার করার জন্য স্বজনদের জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে ২০ হাজার করে প্রদান করা হয়েছে।

এ ছাড়া ধর্ম মন্ত্রণালয়ের উদ্যোগে হিন্দু কল্যাণ ট্রাস্টের ফান্ড থেকে মৃত ব্যক্তির পরিবারে ২৫ হাজার টাকা করে প্রদান করা হয়েছে। ত্রাণ ও পুনর্বাসন মন্ত্রণালয়ের পক্ষ থেকেও নিহত প্রতিটি পরিবারকে ১ লাখ টাকা করে প্রদান করা হবে।

আরও পড়ুন : কোনো সান্ত্বনাই থামাতে পারছে না তাদের বিলাপ

রোববার দুপুর আড়াইটার দিকে মহালয়ার অনুষ্ঠানে যোগ দিতে শ্যালো ইঞ্জিনচালিত নৌকায় করে বড়শশী ইউনিয়নের বদেশ্বরী মন্দিরে যাচ্ছিলেন সনাতন ধর্মাবলম্বীরা। অতিরিক্ত যাত্রীর কারণে করতোয়া নদীতে ডুবে যায় নৌকাটি।

আরও পড়ুন: ‘নৌকাডুবির ঘটনায় অতিরিক্ত যাত্রী বহনই দায়ী’

advertisement