advertisement
advertisement
advertisement
advertisement

বিনা কারণে জুমার নামাজ পরিত্যাগ করলে যেসব শাস্তি পেতে হবে

অনলাইন ডেস্ক
১৪ অক্টোবর ২০২২ ০৯:১০ এএম | আপডেট: ১৪ অক্টোবর ২০২২ ০৯:১০ এএম
নামাজ আদায় করছেন মুসল্লিরা। ছবি : সংগৃহীত
advertisement

জুমার নামাজ খুবই গুরুত্বপূর্ণ ও বরকতময়। অযথা ও বিনা কারণে কখনও জুমার নামাজ পরিত্যাগ করা উচিত নয়। এ ব্যাপারে শরিয়তে কঠিন সতর্কবাণী দেওয়া হয়েছে। রাসুল (সা.) ইরশাদ করেন, ‘যে ব্যক্তি অবহেলা করে তিন জুমা পরিত্যাগ করে, আল্লাহ তাআলা তার হৃদয় মোহরাঙ্কিত করে দেন।’ (তিরমিজি হাদিস : ৫০২)

আরেক হাদিসে রাসুল (সা.) বলেন, যে ব্যক্তি কোনো অপারগতা এবং অনিষ্টের ভয় ছাড়া জুমার নামাজে অংশ গ্রহণ করে না, মুনাফিকের এমন দপ্তরে তার নাম লিপিবদ্ধ করা হয়, যা কখনো মোছা বা রদবদল করা হয় না।

advertisement

প্রত্যেক বালেগ পুরুষের ওপর জুমার নামাজ ওয়াজিব। হাদিসে এসেছে, হাফসা (রা.) থেকে বর্ণিত, রাসুলুল্লাহ (সা.) বলেন, প্রত্যেক (প্রাপ্ত বয়স্ক পুরুষ) মুসলমানের জন্য জুমার নামাজ আদায় করা ওয়াজিব- অপরিহার্য কর্তব্য। -(সুনানে নাসায়ি)

advertisement 4

জুমার দিন বেশ কিছু সুন্নত ও ওয়াজিব আমল আছে। এর একটি হলো, জুমার খুতবা। খুতবা জুমার নামাজ আদায়ের জন্য শর্ত বা ফরজ। খুতবা ব্যতীত জুমার নামাজ হয় না। উপস্থিত মুসল্লিদের জন্য শোনা ওয়াজিব। তাই খুতবা চলাকালে নিরর্থক কাজে ব্যস্ত থাকা শরিয়তের দৃষ্টিতে বৈধ নয়।

advertisement