advertisement
advertisement
advertisement
advertisement

ভালো পথে আসা হলো না নাছির উদ্দিনের

চকরিয়া (কক্সবাজার) প্রতিনিধিত
৩১ অক্টোবর ২০২২ ০৬:২৯ পিএম | আপডেট: ৩১ অক্টোবর ২০২২ ০৬:২৯ পিএম
নাছির উদ্দিন। ছবি: সংগৃহীত
advertisement

কক্সবাজারের পেকুয়া উপজেলার টৈটং ইউনিয়নের পন্ডিতপাড়া এলাকার বাসিন্দা নাছির উদ্দিন। একসময় হত্যা, অস্ত্র ও পাহাড় দখলসহ নানা অপরাধের সঙ্গে জড়িত ছিলেন তিনি। এসব অপরাধ থেকে মুক্ত হতে অস্ত্রসহ আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর কাছে আত্মসমপর্ন করেন নাছির উদ্দিন। কিন্তু ভালো হতে গিয়ে শত্রু পক্ষের হাতে প্রাণ হারাতে হলো নাছির উদ্দিনকে। গতকাল রোববার রাত সাড়ে ১১টায় টৈটং ইউনিয়নের পন্ডিতপাড়া এলাকায় জমির বিরোধ নিয়ে নাছির উদ্দিনকে কুপিয়ে হত্যা করেছে দুর্বৃত্তরা।

স্থানীয়রা জানান, পন্ডিতপাড়া এলাকার মোজাফ্ফর আহমদের সঙ্গে নাছির উদ্দিনের জমি নিয়ে বিরোধ চলে আসছে। এই বিরোধের জেরে তাদের মধ্যে একাধিকবার কথা কাটাকাটি হয়েছে। গতকাল রোববার রাত সাড়ে ১১টায় মোজাফ্ফরের বাড়ির সামনে গেলে নাছির উদ্দিনকে ধারাল অস্ত্র দিয়ে আঘাত করেন মোজাফ্ফর ও তার ছেলে আসহাব উদ্দিন। এতে নাছির গুরুতর আহত হলে তাকে পেকুয়ার একটি বেসরকারি হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। সেখান থেকে চট্টগ্রাম নেওয়ার পথে রাত একটার দিকে তিনি মারা যান।

advertisement

পুলিশ জানায়, ২০২০ সালের ১২ নভেম্বর বাঁশখালীতে ৩৪ জলদস্যু আত্মসমপর্ণ অনুষ্ঠানে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীকে নিজের অস্ত্র জমা দিয়ে আত্মসমর্পণ করেছিলেন দা বাহিনী প্রধান নাছির উদ্দিন। এরপর দ্রুত সময়ের মধ্যে সব মামলায় তার জামিন হলে তিনি জেল থেকে বের হন। হত্যা, অস্ত্র, মারামারি ও বন আইনে অন্তত ২০টি মামলা রয়েছে দা বাহিনী প্রধান নাছির উদ্দিনের বিরুদ্ধে।

advertisement 4

নাছিরের পরিবারের দাবি, নাছির আত্মসমর্পন করার পর ভালো হয়ে যেতে চেয়েছিলেন। জেল থেকে বের হয়ে তিনি একটি মুদির দোকানও দিয়েছিলেন। কিন্তু শত্রুরা তাকে বাঁচতে দিলো না। এই হত্যাকাণ্ডের সুষ্ঠু বিচার এবং জড়িতদের দ্রুত গ্রেপ্তারের দাবি জানিয়েছে।

পেকুয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো.ফরহাদ আলী বলেন, চট্টগ্রাম নেওয়ার পথে মারা যাওয়ায় লাশের ময়নাতদন্ত করা হয়েছে। নাছিরের হত্যাকারীদের ধরতে পুলিশ চেষ্টা করছে। তবে এ ঘটনায় এখনো মামলা হয়নি।

advertisement