advertisement
advertisement
advertisement
advertisement

ঢাবির ৫৩তম সমাবর্তনের আনুষ্ঠানিকতা শুরু

নিজস্ব প্রতিবেদক
১৯ নভেম্বর ২০২২ ১২:৪৭ পিএম | আপডেট: ১৯ নভেম্বর ২০২২ ০১:০৫ পিএম
গ্র্যাজুয়েটদের পদচারণায় মুখরিত হয়ে উঠেছে বিশ্ববিদ্যালয় প্রাঙ্গণ।
advertisement

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) ৫৩তম সমাবর্তনের অনুষ্ঠান শুরু হয়েছে। আজ শনিবার বেলা ১১টা ৫৫ মিনিটে বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্রীয় খেলার মাঠে অনুষ্ঠানের উদ্বোধন ঘোষণা করেন বিশ্ববিদ্যালয়ের চ্যান্সেলর ও রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ। সমাবর্তন সামনে রেখে স্নাতকদের হাস্যোজ্জ্বল পদচারণে মুখর হয়ে উঠেছে গোটা ক্যাম্পাস। ক্যাম্পাসজুড়ে বিরাজ করছে উৎসবের আমেজ।

এর আগে ১১টা ৫৫ মিনিটে রাষ্ট্রপতির নেতৃত্বে বিশ্ববিদ্যালয়ের সিনেট, সিন্ডিকেট ও অ্যাকাডেমিক কাউন্সিলের সদস্য, বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক এবং কনস্টিট্যুয়েন্ট কলেজের অধ্যক্ষ/ইনস্টিটিউটের পরিচালকদের অংশগ্রহণে সমাবর্তন শোভাযাত্রা কার্জন হল থেকে শুরু হয়। এরপর জাতীয় সংগীত পরিবেশন করা হয়।

advertisement

এর আগে ঢাবি গ্র্যাজুয়েটরা সকাল ১১টার মধ্যে সমাবর্তনস্থলে আসন গ্রহণ করেন। আমন্ত্রিত অতিথিরা জিমনেশিয়াম সংলগ্ন গেইট দিয়ে সকাল সাড়ে ১১টায় সমাবর্তনস্থলে প্রবেশ করেন। ১১টা ৫০ মিনিটে সমাবর্তন মঞ্চে ওঠেন চ্যান্সেলর। এরপর জাতীয় সংগীত গাওয়ার পর তিনি অনুষ্ঠানের উদ্বোধন ঘোষণা করেন।

advertisement 4

এবারের সমাবর্তনে সমাবর্তন বক্তা হিসেবে রয়েছেন নোবেল বিজয়ী ফরাসী অর্থনীতিবিদ ড. জ্যঁ তিরোল। তাকে সম্মানসূচক ডক্টর অব লস ডিগ্রি দেওয়া হবে।

এ সমাবর্তন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ইতিহাসের বৃহত্তম সমাবর্তন। সবচেয়ে অধিক সংখ্যক গ্র্যাজুয়েট এ সমাবর্তনে অংশগ্রহণ করেছেন। ৫৩তম সমাবর্তনে অংশগ্রহণের জন্য ৩০ হাজার ৩৪৮জন গ্র্যাজুয়েট ও গবেষক রেজিস্ট্রেশন করেছেন। এদের মধ্যে ২২ হাজার ২৮৭ জন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্রীয় খেলার মাঠে মূল অনুষ্ঠানে যুক্ত থাকবেন তাছাড়া অধিভুক্ত সাত কলেজের দুই ৭ হাজার ৭৯৬ জন সমাবর্তনে অংশ নেবেন।

এবারের সমাবর্তনে ১৩১ জন কৃতী শিক্ষক, গবেষক ও শিক্ষার্থীকে ১৫৩টি স্বর্ণপদক দেওয়া হবে। এছাড়া এবার ৯৭জনকে পিএইচডি, ২জনকে ডিবিএ এবং ৩৫জনকে এম ফিল ডিগ্রি প্রদান করা হবে।

advertisement