advertisement
advertisement
advertisement
advertisement

অনলাইন রিটার্ন দাখিলে নতুন মাইলফলক

নিজস্ব প্রতিবেদক
২৪ নভেম্বর ২০২২ ১২:০০ এএম | আপডেট: ২৩ নভেম্বর ২০২২ ১১:৫১ পিএম
advertisement

অনলাইনে আয়কর রিটার্ন দাখিলের নতুন মাইলফলক অর্জন করেছে জাতীয় রাজস্ব বোর্ড (এনবিআর)। গতকাল বুধবার পর্যন্ত অনলাইনে এক লাখ করদাতা আয়কর রিটার্ন জমা দিয়েছেন। এনবিআরের এমন সাফল্য কেক কেটে উদযাপন করেছে প্রতিষ্ঠানটি।

advertisement

এ সময় এনবিআর চেয়ারম্যান আবু হেনা মো. রহমাতুল মুনিম, সদস্য (কর তথ্য ব্যবস্থাপনা ও সেবা) মো. জাহিদ হাছান, সামস্ উদ্দিন আহমেদ, সদস্য (কর প্রশাসন ও মানবসম্পদ ব্যবস্থপনা) শাহীন আক্তারসহ এনবিআরের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

advertisement 4

এ বিষয়ে এনবিআর পরিচালক (জনসংযোগ) সৈয়দ এ মু’মেন জানিয়েছেন, এমন অর্জন শুধু এনবিআরের

উদযাপন করার বিষয় নয়। বাংলাদেশের করদাতাদের অর্জন। কারণ অনলাইনে ট্যাক্স রিটার্ন জমা দেওয়া সহজ ও স্বস্তিদায়ক বলেই এটা জনপ্রিয় হচ্ছে।

এনবিআর সূত্রে আরও জানা যায়, দেশে বর্তমানে ৮২ লাখের বেশি করদাতা ই-টিআইএন রেজিস্ট্রেশন নিয়েছেন। যার মধ্যে এখন পর্যন্ত সাড়ে ১৭ লাখ রিটার্ন দাখিল হয়েছে। আগামী কয়েক দিনে রিটার্ন দাখিলের সংখ্যা আরও বৃদ্ধি পাবে বলে জানা গেছে।

সাধারণত একজন করদাতার বার্ষিক আয়, ব্যয় ও সম্পদের তথ্য নির্ধারিত ফরমে উপস্থাপন করার মাধ্যম হচ্ছে আয়কর রিটার্ন।

কোনো ব্যক্তি-করদাতার আয় যদি বছরে তিন লাখ টাকার বেশি হয়, তৃতীয় লিঙ্গের ব্যক্তি, নারী ও ৬৫ বছর বা তার বেশি বয়সের করদাতার আয় যদি বছরে সাড়ে তিন লাখ টাকার বেশি হয়, গেজেটভুক্ত যুদ্ধাহত মুক্তিযোদ্ধা করদাতার আয় যদি বছরে চার লাখ ৭৫ হাজার টাকার বেশি হয় এবং প্রতিবন্ধী করদাতার আয় সাড়ে চার লাখ টাকার বেশি হলে তার রিটার্ন দাখিল করা বাধ্যতামূলক।

চলতি অর্থবছর থেকে শুধু রিটার্ন দাখিল করলেই হবে না, বিভিন্ন সরকারি সেবা পেতে হলে রিটার্ন দাখিলের প্রমাণপত্রও দেখাতে হবে। আয়কর নির্দেশিকা ২০২২-২৩ অনুযায়ী ৪০ ধরনের সেবায় রিটার্ন দাখিলের প্রমাণ দেখানো বাধ্যতামূলক করা হয়েছে।

যে কারণে রিটার্ন দাখিলের বিকল্প নেই ই-টিআইএনধারীদের। করদাতাদের ভোগান্তি দূর করতে জাতীয় রাজস্ব বোর্ড (এনবিআর) অনলাইন সেবা দিতে নানামুখী পদক্ষেপ নিয়েছে।

advertisement