advertisement
advertisement
advertisement
advertisement

২০২৩ সালেই ঘটবে এসব ভয়ংকর ঘটনা!

অনলাইন ডেস্ক
২৪ নভেম্বর ২০২২ ১০:৩৩ এএম | আপডেট: ২৪ নভেম্বর ২০২২ ১০:৩৩ এএম
ছবি সংগৃহীত
advertisement

ফরাসি দার্শনিক নস্ত্রাদামুসের ভবিষ্যদ্বাণীর কথা কম বেশি সকলেই জানেন। তার ভবিষ্যদ্বাণী বিশ্ববিখ্যাত। প্রায় পাঁচ শতক আগে নস্ত্রাদামুসের বলে যাওয়া নানা ঘটনার কথাই বাস্তবায়িত হয়েছে বলে দাবি করা হচ্ছে। অ্যাডল্ফ হিটলারের স্বৈরাচারী শাসন থেকে দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধ- সবই আগেভাগে জানিয়ে দিয়েছিলেন তিনি। এবার প্রকাশ্যে এলো ২০২৩ সাল নিয়ে তার ভবিষ্যদ্বাণী।

ভয়ংকর যুদ্ধ:

advertisement

নস্ত্রাদামুসের ভবিষ্যদ্বাণীর মধ্যে অন্যতম, আগামী বছরে হতে চলেছে ভয়ংকর যুদ্ধ। যা থেকে আশঙ্কা, রাশিয়া-ইউক্রেন যুদ্ধের ভয়াবহতা আরও বেড়ে তা থেকেই সৃষ্টি হতে পারে তৃতীয় বিশ্বযুদ্ধের।

advertisement 4

মঙ্গলে পা:

ফরাসি এই জ্যোতিষী তার বইয়ে উল্লেখ করেছেন, ২০২৩ সালে মঙ্গলে এক আলোর বিন্দুর নেমে আসার কথা। যা থেকে মনে করা হচ্ছে, আগামী বছর মঙ্গলে পা রাখতে পারে মানুষ। ধনকুবের এলন মাস্ক আগেই বলেছিলেন, ২০২৯ সালের মধ্যেই মঙ্গলে পড়বে মানুষের পা। তবে নস্ত্রাদামুসের ভবিষ্যদ্বাণী অনুযায়ী, আগামী বছরই লালগ্রহে যাবে মানুষ।

নতুন পোপ:

নস্ত্রাদামুসের দাবি, ২০২৩ সালে দেখা মিলবে নতুন পোপের। শুধু তাই নয়, সেই সঙ্গে তার ভবিষ্যদ্বাণী এই নতুন পোপ নাকি কোনো কেলেঙ্কারির সঙ্গে জড়িয়ে পড়বেন।

উষ্ণায়নেপ দাপট:

উষ্ণায়নের দাপট সারা পৃথিবীই টের পাচ্ছে। এই পরিস্থিতিতে কোনো আশার কথা শোনাতে পারছেন না নস্ত্রাদামুস। তার লিখে যাওয়া ভবিষ্যদ্বাণীতে পরিষ্কার বলা আছে, নতুন বছরে পৃথিবী আরও উত্তপ্ত হয়ে উঠবে। বাড়বে তাপমাত্রা।

বদলাবে পৃথিবীর শক্তি সমীকরণ:

২০২৩ সালে পৃথিবীর দুই প্রবল শক্তিধর দেশ পরস্পর হাত মেলাবে। এমনটাই লিখে গিয়েছেন নস্ত্রাদামুস। তাঁর দাবি, এই মেলবন্ধনের ফল খুব বেশিদিন স্থায়ী হবে না। রাশিয়া-ইউক্রেন যুদ্ধে পশ্চিমি দেশগুলির সঙ্গে এশীয় দেশ ও রাশিয়ার সম্পর্কের সমীকরণ নিয়ে নানা সম্ভাবনা দেখা দিয়েছে। এই অবস্থায় কোনও দুই সুপার পাওয়ার হাত মেলাতে পারে, সেটাই জানতে চাইবে ওয়াকিবহাল মহল।

advertisement