advertisement
advertisement
advertisement

বিবৃতিতে মির্জা ফখরুল
সরকার ব্যর্থতা আড়াল করতে তা-ব চালাচ্ছে

নিজস্ব প্রতিবেদক
২৫ নভেম্বর ২০২২ ১২:০০ এএম | আপডেট: ২৫ নভেম্বর ২০২২ ০৯:১৭ এএম
advertisement

রাষ্ট্র পরিচালনায় নজিরবিহীন ব্যর্থতা আড়াল করতে সরকার দেশব্যাপী একের পর এক অমানবিক ও নৃশংস তা-ব চালাচ্ছে বলে অভিযোগ করেছেন বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। দেশের বিভিন্ন স্থানে বিএনপির নেতাকর্মীদের ওপর হামলা, গায়েবি মামলা এবং গ্রেপ্তারের নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়ে গতকাল এক বিবৃতিতে তিনি এ অভিযোগ করেন।

advertisement

দলীয় নেতাকর্মীদের ওপর হামলাকারীদের অবিলম্বে গ্রেপ্তার ও দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি জানান মির্জা ফখরুল। একই সঙ্গে নেতাকর্মীদের বিরুদ্ধে দায়েরকৃত ‘মিথ্যা’ মামলা প্রত্যাহারসহ গ্রেপ্তকৃত নেতাকর্মীদের নিঃশর্ত মুক্তির দাবি জানান তিনি।

advertisement 4

বিএনপি মহাসচিব বলেন, ‘ক্ষমতার নড়বড়ে অবস্থা অনুধাবন করেই আওয়ামী অবৈধ সরকার রক্ত ঝরানোর খেলায় উš§াদ হয়ে উঠেছে। জোর করে ক্ষমতায় টিকে থাকতে গিয়ে সরকার নিজ দলের সন্ত্রাসীদেরকে দিয়ে বিরোধী মত ও বিশ্বাসের মানুষকে ধ্বংস করে দিতে চাচ্ছে। অশুভ উদ্দেশ্যেই তারা এ ধরনের সন্ত্রাসী কার্যক্রম অব্যাহত রেখেছে। আর এই লক্ষ্য বাস্তবায়নের অংশ হিসেবে ফ্যাসিস্ট আওয়ামী সরকার নিজ দলীয় সন্ত্রাসীদের দিয়ে বিএনপি এবং এর অঙ্গ ও সহযোগী সংগঠনসহ বিরোধী দলের নেতাকর্মীদের ওপর চালাচ্ছে নারকীয় তা-ব।’

মির্জা ফখরুল অভিযোগ করেন, ‘শান্তিপূর্ণ কর্মিসভায় যাওয়ার পথে বিএনপির ময়মনসিংহ বিভাগীয় সাংগঠনিক সম্পাদক সৈয়দ এমরান সালেহ প্রিন্সের গাড়িবহরে আওয়ামী সন্ত্রাসীদের হামলা, কৃষকদলের সহ-সভাপতি আবুল বাশার আকন্দসহ আরও নেতাদের গাড়ি ভাঙচুর ও নেতাকর্মীদেরকে আহত করা হয়েছে। শেরপুরে নেতাকর্মীদের ওপর সন্ত্রাসীরা হামলা চালিয়ে তাদেরকে আহত করাসহ মিথ্যা মামলা দায়ের করা হয়েছে। নেতাকর্মীদের ওপর আওয়ামী সন্ত্রাসীদের এই কাপুরুষোচিত, পৈশাচিক

ও ন্যক্কারজনক হামলা ও মামলা দায়েরের ঘটনা অমানবিক ও নির্দয়।’

মির্জা ফখরুল বলেন, ‘শেরপুরে ৬৬ জনের নামে মিথ্যা মামলা দেওয়া হয়েছে। ফুলপুরে আওয়ামী সশস্ত্র সন্ত্রাসীরা বিএনপি নেতাকর্মীসহ সাধারণ মানুষের ওপর হামলা ও ভাঙচুর চালিয়ে উল্টো ৩০-৩৫ নেতাকর্মীর বিরুদ্ধে মিথ্যা মামলা দিয়ে হয়রানি করছে। এসব ঘটনা বর্তমান শাসকগোষ্ঠীর চলমান জুলুম-নির্যাতনের খ-চিত্র।’ তিনি বলেন, জনগণ এখন আওয়ামী সরকারের ভয়াবহ দুঃশাসন প্রতিরোধে চূড়ান্ত প্রস্তুতি নিচ্ছে।

স্থায়ী কমিটির বৈঠক : এদিকে গত সোমবার রাতে দলের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমানের সভাপতিত্বে স্থায়ী কমিটির ভার্চুয়াল সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। এ সভার সিদ্ধান্ত গতকাল বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর স্বাক্ষরিত এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে জানানো হয়েছে। সভায় ব্রাহ্মণবাড়িয়ার বাঞ্ছারামপুরের লিফলেট বিতরণকালে পুলিশের গুলিতে নিহত রফিকুল ইসলাম নয়ন মিয়ার মৃত্যুতে গভীর শোক ও ক্ষোভ প্রকাশ করা হয়। এই অবৈধ সরকার বেআইনিভাবে ক্ষমতায় টিকে থাকার জন্য জনগণের ন্যায়সঙ্গত গণ-আন্দোলনকে নস্যাৎ করার লক্ষ্যে এই হত্যাকা-ে মেতে উঠেছে বলে সভা মনে করে।

সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, সভা মনে করে সরকার পুনরায় গায়েবি ও মিথ্যা মামলা দিয়ে হাজার হাজার নেতাকর্মীকে হয়রানি করছে। সভায় অবৈধ সরকারের এহেন হীনকার্যকলাপের তীব্র নিন্দা, ক্ষোভ প্রকাশ ও প্রতিবাদ জানানো হয়। সভায় অবিলম্বে নয়ন হত্যার জন্য দায়ী পুলিশ অফিসার ও সংশ্লিষ্ট পুলিশ সদস্যদের গ্রেপ্তার এবং তাদের হত্যার দায়ে আইনের আওতায় আনা এবং এসব মামলা দায়ের অবিলম্বে বন্ধ ও দায়েরকৃত মামলা প্রত্যাহারের দাবি জানানো হয়।

বিজ্ঞপ্তিতে আরও বলা হয়, নিত্যপ্রয়োজনীয় দ্রব্য ও সেবার মুল্য বৃদ্ধিতে যখন জনগণের জীবন অতিষ্ঠ, তখন বিদ্যুতের আবারও ১৯.৯২ শতাংশ মূল্য বৃদ্ধিতে বিএনপি তীব্র ক্ষোভ ও প্রতিবাদ জানাচ্ছে। সভা মনে করে, অবৈধ সরকার ভ্রান্ত জ্বালানি নীতি, বিদ্যুৎ উৎপাদনে চরম দুর্নীতি ও কুইকরেন্টাল প্ল্যান্টের বেআইনি ক্যাপাসিটি চার্জ ও সর্বোপরি নজিরবিহীন দুর্নীতির কারণে ঘন ঘন বিদ্যুতের মূল্য বৃদ্ধি চলমান অনৈতিক সংকটে জনগণের দুর্ভোগ সীমা অতিক্রম করছে। সভা অবিলম্বে এ মূল্য বৃদ্ধির ঘোষণা বাতিল করার দাবি জানায়।

advertisement