advertisement
advertisement
advertisement

ওমরায় গিয়ে পালালেন বাংলাদেশি যুবক

রাজবাড়ী প্রতিনিধি
২৭ নভেম্বর ২০২২ ০৮:১৭ পিএম | আপডেট: ২৭ নভেম্বর ২০২২ ০৮:১৭ পিএম
পালাতক হাসান শেখ। পুরোনো ছবি
advertisement

ওমরাহ পালন করতে গিয়ে সৌদিতে পালিয়েছেন হাসান শেখ (২৬) নামে এক বাংলাদেশি নাগরিক। তিনি রাজবাড়ী সদর উপজেলার আলীপুর ইউনিয়নের বারবাকপুর গ্রামের বাসিন্দা।

জানা গেছে, রাজবাড়ী জেলা থেকে আবু বকর সিদ্দিক নামের এক মুয়াল্লিম প্রতিবছর ওমরাহ পালনের জন্য ২০-৩০ জনকে নিয়ে সৌদি আরব যান। এ বছর ২১ জনের একটি গ্রুপ নিয়ে ওমরাহ করতে গত ২২ অক্টোবর সৌদিআরব পৌঁছান তারা। সৌদিতে পৌঁছানোর ৪দিন পর গত ২৬ অক্টোবর সকাল ১০টায় কেনাকাটা করতে যাওয়ার কথা বলে পালিয়ে যান হাসান শেখ। এ বিষয়ে রাজবাড়ী সদর থানায় মুয়াল্লিম আবু বকর সিদ্দিক গত ১৪ নভেম্বর একটি জিডি করেছেন।

advertisement

এ ঘটনায় আবু বকর সিদ্দিক বলেন, ‘প্রতি বছর আমি সৌদিতে ওমরাহ করতে যাই। কখনো কোনো দুর্ঘটনা ঘটেনি। যে ছেলেটা পালিয়েছে সে আমার কাছে এসে বলেছিল তার মায়ের ইচ্ছা একটা ছেলেকে ওমরাহ করাবেন। এ বলে হাসান শেখ আমাকে খুব অনুরোধ করে ওমরাহ করতে নিয়ে যাওয়ার জন্য। কিন্তু সেখানে নিয়ে যাবার ৪ দিন পর সে নিখোঁজ হয়ে যান। হাসান শেখের আপন ভাই মোতালেব সৌদিতে থাকেন। সেখান থেকে আমাকে ফোন করে বলেছিল হুজুর আমি রাতে ভাইয়ের সঙ্গে এখানে থাকব। পরদিন চলে আসব। কিন্তু পরের দিন তাকে না দেখে আমি তার ভাইকে ফোন করি, সে জানান হাসান আপনাদের কাছে যাবার কথা বলে চলে গেছে।’

advertisement 4

তিনি আরও বলেন, ‘হাসান শেখ স্বেচ্ছায় সৌদিআরবে পালিয়েছেন। তার ভাই সৌদির রিয়াদে থাকেন। হাসান শেখ সেখানে কোনো কাজ করার জন্য আমাকে ফাঁকি দিয়ে ওমরাহ হজের নামে সৌদি গিয়েছেন। আমি তার চালাকি বুঝতে পারিনি।’

তিনি আরও বলেন, ‘পলাতক হাসান শেখ সৌদিতেই গিয়ে তার পরিবারের সঙ্গে প্রতিদিন যোগাযোগ করছেন। কিন্তু আমার কাছে তার পরিবার বলছে হাসান তাদের সঙ্গে কোনো যোগাযোগ করেনি।’

রাজবাড়ী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শাহাদাত হোসেন বলেন, ‘এ ঘটনায় আবু বকর সিদ্দিক থানায় একটি জিডি করেছেন। বিষয়টি তদন্ত করে দেখা হচ্ছে।’

advertisement