advertisement
advertisement
advertisement

শিশুকে ধর্ষণের পর হত্যা মামলায় আসামির মৃত্যুদণ্ড

আদালত প্রতিবেদক
৩০ নভেম্বর ২০২২ ০২:৩৪ পিএম | আপডেট: ৩০ নভেম্বর ২০২২ ০২:৩৭ পিএম
আসামি শিপন। ছবি: সংগৃহীত
advertisement

রাজধানীর বাড্ডায় পাঁচ বছর আগে সাড়ে তিন বছরের এক শিশুকে ধর্ষণের পর হত্যার অভিযোগের মামলায় আসামি শিপনের মৃত্যুদণ্ডের রায় দিয়েছেন ট্রাইব্যুনাল। আজ বুধবার ঢাকার সাত নম্বর নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালের বিচারক সাবেরা সুলতানা খানম আসামির উপস্থিতিতে এ রায় ঘোষণা করেন।

রায় ঘোষণার পর শিপনকে সাজা পরোয়ানা দিয়ে কারাগারে পাঠানো হয়। সংশ্লিষ্ট আদালতের রাষ্ট্রপক্ষের প্রসিকিউটর আফরোজা ফারহানা আহমেদ (অরেঞ্জ) রায়ের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন ।

advertisement

রায়ে আদালত বলেন, শিশুরা যদি তাদের আশেপাশের প্রতিবেশীদের কাছে নিরাপদ না থাকে তা সমাজের জন্য অশনি সংকেত। আসামি একজন পূর্ণ বয়স্ক ব্যক্তি হিসেবে নিজের পাশবিক স্বার্থ চরিতার্থ করতে ভিকটিমের জীবনে কালিমা লেপন করেছে এবং তার জীবন প্রদীপ নিভিয়ে দিয়েছে। আসামির ওই অপরাধের জন্য নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইন ২০০০-এর ৯(২) ধারায় বর্ণিত সর্বোচ্চ শাস্তি তার প্রাপ্য। আসামিকে ওই ধারায় মৃত্যুদণ্ডে দণ্ডিত করা হলো।

advertisement 4

মামলা থেকে জানা যায়, ২০১৭ সালের ৩০ জুলাই শিপন নিজের বাসায় আসেন। এ সময় ভুক্তভোগী শিশুকে তার বাসার সামনে দেখেন। তখন আসামি শিশুটিকে ভাত খাওয়ান। খাওয়া শেষে ধর্ষণ করেন। শিশুটি চিৎকার করলে তার মুখ ও গলাচেপে ধরে রাখেন। শিশু নিস্তেজ হয়ে পড়লে আসামি তাকে বাথরুমে ফেলে রেখে চলে যান। ঘটনার পরদিন ৩১ জুলাই শিশুটির বাবা মেহেদী হাসান বাদী হয়ে বাড্ডা থানায় মামলা দায়ের করেন।

২০১৯ সালের ২৬ জানুয়ারি মামলার তদন্ত কর্মকর্তা ডিবি পুলিশের এসআই রাশেদুল আলম আদালতে চার্জশিট জমা দেন।

advertisement