advertisement
advertisement
advertisement

মনিরামপুর মুদিদোকানে পেট্রল অকটেন ডিজেল বিক্রি

জি. এম. বাবু, মনিরামপুর (যশোর)
৪ ডিসেম্বর ২০২২ ১২:০০ এএম | আপডেট: ৪ ডিসেম্বর ২০২২ ১২:৪৪ এএম
advertisement

মনিরামপুর উপজেলায় লাইসেন্স ছাড়াই অবাধে পেট্রল, অকটেন ও ডিজেলসহ বিভিন্ন জ্বালানি তেল বিক্রি করা হচ্ছে। বাসাবাড়ির নিচে ও মুদি দোকান থেকে শুরু করে বিভিন্ন দোকানে প্রকাশ্যে চলছে কেনাবেচা। এতে যে কোনো সময় প্রাণহানিসহ ঘটতে পারে বলে আশঙ্কা সচেতন মহলের। বৃহত্তর এই উপজেলার জ¦ালানি তেলের ডিলার ও স্থানীয় ব্যবসায়ীরা এ বিষয়ে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের কাছে অভিযোগ করেও প্রতিকার পাচ্ছেন না বলে অভিযোগ উঠেছে।

উপজেলার রোহিতা, কাশিমনগর, ভোজগাতী, ঢাকুরিয়া, হরিদাসকাটি, মনিরামপুর সদর, খেদাপাড়া, হরিহরনগর, ঝাঁপা, মশ্মিমনগর, চালুয়াহাটী, শ্যামকুড়, খানপুর, দূর্বাডাঙ্গা, কুলটিয়া, নেহালপুর ও মনোহরপুর ইউনিয়নের বিভিন্ন হাটবাজারের মুদি দোকান এবং সড়কের পাশে বোতলে করে প্রকাশ্যে পেট্রল, অকটেন ও ডিজেল বিক্রি হচ্ছে।

advertisement

মনিরামপুর উপজেলা ফায়ার সার্ভিস অফিসের ইনচার্জ প্রণব কুমার জানান, সড়কের পাশে সাজিয়ে রেখে এলপি গ্যাস সিলিন্ডার বিক্রি করা খুবই বিপজ্জনক। এ ছাড়া যত্রতত্র পেট্রল বা দাহ্য পদার্থ বিক্রির কারণে ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ডসহ প্রাণহানির ঘটনা ঘটতে পারে। লাইসেন্স ছাড়া খোলাবাজারে গ্যাস সিলিন্ডার এবং পেট্রল, অকটেন ও ডিজেল বিক্রি করার নিয়ম নেই। বিষয়টি আমার নজরে এসেছে। দ্রুত সময়ের মধ্যে অবৈধ এসব ব্যবসায়ীর বিরুদ্ধে যথাযথ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

যশোর জেলা ফায়ার সার্ভিসের ওয়্যার হাউস ইন্সপেক্টর লুৎফর রহমান খাঁন জানান, লাইসেন্স ছাড়া খোলামেলা পেট্রল, অকটেন ও ডিজেল বা গ্যাস সিলিন্ডার বিক্রি করা সম্পূর্ণ নিষিদ্ধ। সম্প্রতি মনিরামপুর উপজেলাব্যাপী পেট্রল, অকটেন, ডিজেল ও গ্যাস সিলিন্ডার বিক্রেতাদের একটি তালিকা করা হয়েছে। খুব দ্রুতই অভিযান চালানো হবে। এ ব্যাপারে মনিরামপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. কবীর হোসেন জানান, এ ধরনের কর্মকাণ্ডে জড়িতদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

advertisement