advertisement
advertisement
advertisement

আজ থেকে পর্দায় শাহরুখ ঝড়

শতাধিক দেশে মুক্তি পাচ্ছে ‘পাঠান’

জাহিদ ভূঁইয়া
২৫ জানুয়ারি ২০২৩ ১২:০০ এএম | আপডেট: ২৫ জানুয়ারি ২০২৩ ০৯:৫৫ এএম
advertisement

শাহরুখ খান। দুই শব্দের একটি নাম। কিন্তু এই নামের জনপ্রিয়তা আকাশচুম্বী। খ্যাতি-যশ সবই অর্জন করেছে এই নাম। কখনো ‘বলিউড বাদশাহ’, কখনো ‘কিং অব রোমান্স’, কখনো ‘বাজিগর’ আবার কখনো ‘ডন’ খেতাব নামের আগে বিশেষণ হিসেবে যুক্ত হয়েছে। চরিত্র নিয়ে তিনি পরীক্ষা-নিরীক্ষা করেছেন বহুবার। নিজেকে কখনো নির্দিষ্ট ইমেজে আবদ্ধ রাখেননি। দশর্কও প্রতিটি চরিত্রে তাকে সাদরে গ্রহণ করেছেন। আর করবে না-ই বা কেন! তিনি যে দর্শক হৃদয়ে ‘বাদশাহ’ হয়ে আছেন দীর্ঘদিন। বলিউডের কিংবদন্তি অভিনেতা এবার পর্দায় ঝড় তুলবেন ‘পাঠান’ দিয়ে। আজ ভারতসহ বিশ্বের শতাধিক দেশে একযোগে মুক্তি পাবে বহুল আলোচিত এই সিনেমা। হিন্দি ছাড়াও এটি প্রেক্ষাগৃহে আসবে তামিল, তেলেগুসহ ভারতের বিভিন্ন আঞ্চলিক ভাষায়। সিদ্ধার্থ আনন্দ পরিচালিত ছবিটিতে কিং খানের সহশিল্পী হিসেবে দেখা যাবে দীপিকা পাড়ুকোন ও জন আব্রাহামকে।

‘পাঠান’ দিয়ে চার বছর পর বড়পর্দায় ফিরছেন শাহরুখ। কিন্তু এই ছবির মতো বিতর্ক হয়তো এর আগে তাকে দেখতে হয়নি। শুরুটা হয় ‘বেশরম রং’ গান থেকে, যেখানে দীপিকার গায়ে ছিল গেরুয়া বিকিনি। ‘ওম শান্তি ওম’ তারকার সেই পোশাককে ‘অশ্লীল’ আখ্যা দেয় একদল, আরেক দল অভিযোগ করে ধর্মীয় অনুভূতিতে আঘাত দেওয়ার। শাহরুখের বিরুদ্ধে হুমকি সিনেমা বর্জনের ডাক আসে। অবস্থা এমন দাঁড়ায়, ছবিটির সেন্সর পাওয়া নিয়েও অনিশ্চয়তা তৈরি হয়। শেষ পর্যন্ত ১০টি দৃশ্য কর্তন সাপেক্ষে সেন্সর পায় ‘পাঠান’। কিন্তু সিনেমা নিয়ে একের পর এক বিতর্ক চলতেই থাকে। ছবিটি আটকাতে ভারতের বিভিন্ন অঙ্গরাজ্যে সোচ্চার বিভিন্ন ধর্মীয় গোষ্ঠী। শাহরুখকে হত্যার হুমকি দেওয়া হয়েছে, তার কুশপুত্তলিকা দাহ করা হয়েছে। নিয়মিত চলছে সিনেমাটির পোস্টার পোড়ানো, ছেঁড়াসহ মুক্তিতে বাধা দেওয়ার নানা কর্মসূচি। ‘পাঠান’ প্রসঙ্গে কথা বলেছেন ভারতের প্রধানমন্ত্রীসহ বিভিন্ন অঞ্চলের মুখ্যমন্ত্রীরা।

advertisement

এতকিছুর পরও ভারতীয় বিনোদন দুনিয়ার বুকে ‘পাঠান’ ঝড় চলছেই। সিনেমা মুক্তির আগে বক্স অফিসের সব হিসাব-নিকাশ উল্টে দিয়েছে অ্যাকশন- থ্রিলারধর্মী ছবিটি। শাহরুখপ্রেমীরা তাদের প্রিয় তারকার প্রতি সম্পূর্ণ নিবেদিত, তা সবারই জানা। ‘পাঠান’ মুক্তির আগেই বক্স অফিসে তার ঝলক দেখা গেছে। ২০ জানুয়ারি ছবির অগ্রিম টিকিট বুকিং শুরু হওয়ার পর সবাই বক্স অফিসে হুমড়ি খেয়ে পড়েন। এই যেমন বলা যায় কলকাতার কথা, শহরটিতে অগ্রিম টিকিট বিক্রি শুরুর মাত্র ১ ঘণ্টার মধ্যেই ৫০ শতাংশের বেশি বিক্রি হয়ে যায়। কেবল এটিই নয়, বিক্রি শুরুর মাত্র ১০ মিনিটের মধ্যে অনেক হলের টিকিট শেষ হয় যায়। টিকিট কিনতে দর্শকের চাপ এত বেশি ছিল যে, কলকাতায় সার্ভারও ক্র্যাশ করে। সিনেমাপ্রেমীরা শাহরুখকে অ্যাকশন ইমেজে দেখার জন্য হাজার হাজার টাকা ওড়াচ্ছেন। বেশ কিছু মলে ‘পাঠান’ ছবির টিকিট বাংলাদেশি মুদ্রায় ২ হাজার ৫০০, ২ হাজার ৩০০ আর ২ হাজার ১০০ টাকায় বিক্রি হয়েছে। এত দামি টিকিট হওয়া সত্ত্বেও সব শো হাউসফুল হয়ে গেছে।

advertisement 4

‘পাঠান’ নিয়ে আগ্রহের পাঁচ কারণ

চার বছর পর শাহরুখের উপস্থিতি : প্রায় চার বছর পর নায়ক হয়ে বড়পর্দায় হাজির হচ্ছেন শাহরুখ খানÑ ভক্তদের অপেক্ষা তাই একটু বেশিই ছিল। ‘পাঠান’-এর ট্রেলারে প্রিয় তারকাকে অ্যাকশন হিরোর চরিত্রে দেখে মুগ্ধ অনেক দর্শক। অনেকেই মনে করছেন, অ্যাকশন, সংলাপ মিলিয়ে ছবিটি বক্স অফিসে ঝড় তুলবে। শাহরুখের ফেরা হবে ফেরার মতোই।

দীপিকার অ্যাকশন রূপ : বছর কয়েক আগে দেওয়া সাক্ষাৎকারে দীপিকা জানিয়েছিলেনÑ ইতিহাসনির্ভর সিনেমা করতে করতে তিনি কিছুটা ক্লান্ত, অন্য ঘরানার সিনেমা করতে চান। ‘পাঠান’-এ যেভাবে দেখা যাবে, হিন্দি সিনেমায় এভাবে আগে দেখা যায়নি অভিনেত্রীকে। নিজের রোমান্টিক ইমেজ ঝেড়ে ফেলে পুরোদস্তুর অ্যাকশনের প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন তিনি, যা সিনেমার গান নিয়ে তৈরি বিতর্ক ভুলিয়ে দিয়েছে।

ধুন্ধুমার অ্যাকশনের আভাস : সিদ্ধার্থ আনন্দের সিনেমা এটি। অ্যাকশন সিনেমা বানাতে যিনি বরাবরই পারঙ্গম, যার প্রমাণ দিয়েছেন আগের সিনেমা ‘ওয়ার’-এ। ‘পাঠান’-এর ট্রেলারে স্টান্ট, অ্যাকশন কোরিওগ্রাফি দেখে মুগ্ধ দর্শকরা। এ ছাড়া কেবল শাহরুখ-দীপিকাই নন, ট্রেলারে খল চরিত্রে জন আব্রাহাম ও পার্শ্বচরিত্রে আশুতোষ রানা, ডিম্পল কাপাডিয়ার ঝলক দেখেও মুগ্ধ দর্শকরা।

বিতর্কিত কিছু না থাকা : ‘পাঠান’-এর ট্রেলারে বিতর্কিত কিছু তো ছিলই না, বরং শাহরুখকে দেখা গেছে দেশপ্রেমী এক এজেন্ট হিসেবে। ট্রেলারের শেষে শাহরুখের মুখে ‘জয় হিন্দ’ সংলাপ যেন এক ঝটকায় সব বিতর্ক সরিয়ে দিয়েছে।

বিনোদনের প্রতিশ্রুতি : গত কয়েক বছরে দক্ষিণ ভারতের সিনেমা হিট হওয়ার অন্যতম কারণ হিসেবে অনেক বিশ্লেষকই বলেছেন তামিল, তেলেগু বা কন্নড় সিনেমাগুলোয় বিনোদনের সব উপাদান মজুদ থাকে। হিন্দি সিনেমায় যা অনেক দিন ধরেই অনুপস্থিত। সাধারণ দর্শক তাই বলিউডের সিনেমা থেকে দূরে সরে যাচ্ছেন। কিন্তু ‘পাঠান’-এর ট্রেলার দেখে অনেক দর্শকই মনে করছেন, সিনেমাটিতে বিনোদনের সব উপাদানই থাকবে।

advertisement