advertisement
advertisement
advertisement
advertisement

দুই মাদক কারবারি নিহত

উল্লাপাড়া ও টেকনাফ প্রতিনিধি
২১ এপ্রিল ২০১৯ ১২:০০ এএম | আপডেট: ২১ এপ্রিল ২০১৯ ০৯:১৬ এএম
advertisement

সিরাজগঞ্জের উল্লাপাড়া ও কক্সবাজারের টেকনাফে কথিত বন্দুকযুদ্ধে আরও দুই ব্যক্তি নিহত হয়েছেন। গত শুক্রবার গভীর রাতে ও গতকাল ভোরে ঘটনা দুটি ঘটে। নিহত দুজনই মাদককারবারি বলে দাবি করেছে পুলিশ। উল্লাপাড়ায় ‘বন্দুকযুদ্ধে’র পর পুলিশ নিহতের ৫ সহযোগীকে আটক করেছে।

উল্লাপাড়া মডেল থানার ওসি দেওয়ান কউশিক আহম্মেদ জানান, গভীর রাতে ঘোষগাতী মহল্লায় একদল মাদককারবারি মাদক বেচাকেনা করছিল। এমন তথ্যের ভিত্তিতে রাত আড়াইটার দিকে পুলিশের একটি দল ঘোষগাতী পুকুরপাড়ে তাদের ঘিরে ফেলার চেষ্টা করলে মাদককারবারিরা গুলি চালায়। পুলিশও পাল্টা চালালে মাদককারবারি মোস্তফা কামাল গুলিবিদ্ধ হয়। হাসপাতালে নেওয়া হলে চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

advertisement 3

মোস্তফা কামাল উল্লাপাড়া পৌর এলাকার কাওয়াক গ্রামের প্রয়াত আবদুর রশিদের ছেলে। সে এলাকার শীর্ষস্থানীয় মাদক বিক্রেতা। তার বিরুদ্ধে ১১টি মামলা রয়েছে। আটক ৫ জনও মাদক ব্যবসায়ী। তাদের কাছ থেকে ২২ বোতল ফেনসিডিল ও ৮০ পিস ইয়াবা ট্যাবলেট উদ্ধার করা হয়। টেকনাফ মডেল থানার ওসি প্রদীপ কুমার দাস জানান, গতকাল ভোরে হোয়াইক্যং কাঞ্জরপাড়ার তারাবুনিয়ার ছড়ার আবদুর রহমানের ধানের জমিতে ইয়াবা ট্যাবলেটের লেনেদেন কেন্দ্র করে ইয়াবাকারবারিদের দুইপক্ষের মধ্যে ‘বন্দুকযুদ্ধ’ হয়।

advertisement 4

খবর পেয়ে পুলিশের একটি দল ঘটনাস্থলে গেলে তারা পালিয়ে পায়। ঘটনাস্থল থেকে গুলিবিদ্ধ সাহাব উদ্দিনকে উদ্ধার করে হাসপাতালে নিয়ে গেলে চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন। সে হোয়াইক্যং ইউনিয়নের কাঞ্জরপাড়া এলাকার আবদুর রহমানের ছেলে। সে ইয়াবাকারবারি। ঘটনাস্থল থেকে ২টি এলজি, ৭টি কার্তুজ, ৯টি খালি খোসা ও ২ হাজার ৪০০ পিস ইয়াবা ট্যাবলেট উদ্ধার করা হয়।

advertisement