advertisement
advertisement
advertisement
advertisement

চাঁদাবাজি, টেন্ডারবাজি, প্রশাসনের প্রশ্রয়ে আ. লীগ এত বড় সংগঠন : ববি হাজ্জাজ

নিজস্ব প্রতিবেদক
২৭ সেপ্টেম্বর ২০১৯ ০৮:০৬ পিএম | আপডেট: ২৭ সেপ্টেম্বর ২০১৯ ০৮:৩৫ পিএম
চট্টগ্রামে এক আলোচনা সভায় বক্তব্য দেন এনডিএমের চেয়ারম্যান ববি হাজ্জাজ। ছবি : আমাদের সময়
advertisement

চাঁদাবাজি, টেন্ডারবাজি, প্রশাসনের প্রশ্রয়ে ভোটচুরির সাহায্যেই আজ আওয়ামী লীগ এত বড় সংগঠন হয়েছে বলে মন্তব্য করেছেন জাতীয়তাবাদী গণতান্ত্রিক আন্দোলনের (এনডিএম) চেয়ারম্যান ববি হাজ্জাজ৷

আজ শুক্রবার চট্টগ্রামের মেট্রোপলিটন সাংবাদিক ইউনিয়নে মুসলিম নির্যাতনের প্রতিবাদে এক প্রতিবাদী আলোচনা সভায় ববি হাজ্জাজ এই মন্তব্য করেন। চট্টগ্রাম মহানগরের উদ্যোগে এই আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়।

advertisement 3

সভায় ববি হাজ্জাজ বলেন, ‘দেশের খালে-বিলে বস্তায় বস্তায় টাকা পাওয়া যাচ্ছে৷ সংবিধানে গণিকাবৃত্তি আর জুয়া খেলা বন্ধে রাষ্ট্র ব্যবস্থা নিবে উল্লেখ থাকলেও ক্যাসিনোর সাম্রাজ্য গড়ে তুলেছে যুবলীগ। আজকে সরকার কথিত শুদ্ধি অভিযান চালাচ্ছে কিন্তু হিসাব নিতে হবে এসব টাকার কুমীররা আওয়ামী লীগের প্রতিটি কর্মসূচিতে কত টাকা দিয়েছে আর ভোট চুরি করতে এরা কর্মীদের কত টাকা দিয়েছে। চাঁদাবাজি, টেন্ডারবাজি, প্রশাসনের প্রশ্রয়ে ভোটচুরির সাহায্যেই আজ আওয়ামী লীগ এত বড় সংগঠন হয়েছে।’

advertisement 4

তিনি বলেন, ‘রোহিঙ্গাদের আশ্রয় দিয়ে বাহাবা কুঁড়িয়েছিলেন আজ বুঝতে পারছেন তারা গলার কাঁটা হয়েছে। সেনাবাহিনীকে দূর্বল করে রেখেছেন বলেই আজ মিয়ানমারের কাছেও আমাদের নত হয়ে থাকতে হয়৷ প্রতিবেশী রাষ্ট্র ভারতে চলছে নীরবে মুসলিম বিতারণ আর নিপীড়ন কর্মসূচি। মোদি সরকার কাশ্মিরকে ভূমিদস্যুদের মতো দখল করে নিয়েছে৷’

ববি হাজ্জাজ আরও বলেন, ‘আসামে বিতর্কিত নাগরিকত্বের তালিকা হয়েছে৷ এখান থেকেও মুসলমানদের বাংলাদেশে পুশব্যাক করবে। কাশ্মিরের মুসলিমদের কান্না আমাদের নাড়া দেয়। আমরা তাদের ভাই। এই নির্যাতন, নিপীড়নের বিরুদ্ধে গর্জে উঠার জন্যই আমাদের সীমান্ত অভিমুখে যাত্রা। ভারতকে বলছি, মুসলমানরা জেগে উঠলে পালাবার পথ পাবেন না।’

এনডিএম’র চট্টগ্রামের আনোয়ারা উপজেলা শাখার আহ্বায়ক শাহাবুদ্দিনের সভাপতিত্বে সভায় উপস্থিত ছিলেন- দলটির দপ্তর সম্পাদক লায়ন নুরুজ্জামান হীরা, যুগ্ম দপ্তর সম্পাদক মো. শাহাদাত হোসেন, যুবনেতা সাইফুর রহমান সুমন, সাইফুল্লাহ মনির, জাতীয়তাবাদী গণতান্ত্রিক ছাত্র আন্দোলনের সাধারণ সম্পাদক মো. মাসুদ রানা জুয়েল প্রমুখ।

advertisement