advertisement
advertisement
advertisement
DBBL
advertisement
advertisement

প্রেসবক্স থেকে

২৩ নভেম্বর ২০১৯ ০০:০০
আপডেট: ২৩ নভেম্বর ২০১৯ ০০:২৫
advertisement

লিটন-নাইমের মাথায় আঘাত

ইশান্ত শর্মার বল লিটন দাসের হেলমেটে আঘাত করলে তিনি শেষ পর্যন্ত আর ব্যাটিংও করতে পারেননি। ২৪ রানে রিটায়ার্ডহার্ট হয়ে সাজঘরে ফিরে যান। তার পরিবর্তে ব্যাটিং করেন মেহেদী মিরাজ। অন্যদিকে নাঈম হাসান আঘাত পান মাথায়, তিনি মোহাম্মদ শামীর বলে আঘাত পান। পরে তার পরিবর্তে ফিল্ডিং করতে নামেন তাইজুল ইসলাম।

রোমাঞ্চিত সৌরভ

ভারতের সাবেক অধিনায়ক ও বিসিসিআই প্রেসিডেন্ট সৌরভ গাঙ্গুলীর রোমাঞ্চ যেন থামবার নয়। গোলাপি টেস্ট নিয়ে মাঠের যত আয়োজন সবকিছুর তো কলকাঠি নেড়েছেন এই সৌরভইই। গ্যালারি থেকে দর্শকদের সঙ্গে সেই রোমাঞ্চ প্রকাশ করেন সেলফি তুলে, হাত নেড়ে।

১২ জনের ব্যাটিং

লিটন দাস রিটায়ার্ড হার্ট হয়ে উঠে গেলে বাংলাদেশের ব্যাটিং করেন ১২ জন। মাঠে নামা প্রত্যেকেই ব্যাট হাতে বল মোকাবিলা করেছেন। সর্বোচ্চ ৫২ বল খেলেছেন সাদমান ইসলাম ও সর্বনিম্ন মোহাম্মদ মিথুন ২ বল খেলেছেন।

নিরাপত্তায় নাভিশ্বাস

মাঠে ছিলেন বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জি। তাই নিরাপত্তার কোনো ফাঁক রাখেনি কলকাতা পুলিশ। দুজনের জন্য নিñিদ্র নিরাপত্তার ব্যবস্থা করায় আশপাশের রাস্তাসহ দুজনের অবস্থানকারী গ্যালারি কার্যত অচল ছিল।

কানায় কানায় পূর্ণ ইডেন

সৌরভ গাঙ্গুলী আগেই বলেছেন, টেস্ট শুরুর আগেই শেষ হয়ে গেছে চার দিনের টিকিট। শেষ কবে এমন হয়েছিল জানতে তিনি প্রশ্নও রেখেছিলেন। আসলেই তা-ই। ৬৭ হাজার ধারণ ক্ষমতাসম্পন্ন ইডেন গার্ডেন্স কানায় কানায় পূর্ণ ছিল।

দলে না থেকেও আছেন মেহেদী-তাইজুল

একাদশের দুজন খেলোয়াড় মাথায় আঘাত পাওয়ায় একাদশে না থেকেও যেন ছিলেন মেহেদী মিরাজ ও তাইজুল ইসলাম। মেহেদী লিটনের পরিবর্তে আর তাইজুল নেমেছিলেন নাঈম হাসানের পরিবর্তে।

advertisement