advertisement
advertisement
advertisement
DBBL
advertisement
advertisement

পিকে হালদারের হাজার কোটি টাকা ফ্রিজ

নিজস্ব প্রতিবেদক
১৪ জানুয়ারি ২০২১ ০৪:৩৪ পিএম | আপডেট: ১৪ জানুয়ারি ২০২১ ০৯:৫৬ পিএম
প্রশান্ত কুমার হালদার ওরফে পিকে হালদার। পুরোনো ছবি
advertisement

প্রায় সাড়ে তিন হাজার কোটি টাকা আত্মসাতের অভিযোগ ওঠার পর বিদেশে পাড়ি দেওয়া ইন্টারন্যাশনাল লিজিং অ্যান্ড ফাইন্যান্স সার্ভিস লিমিটেডের পরিচালক প্রশান্ত কুমার হালদার (পিকে হালদার) এক হাজার ৬০ কোটি টাকা ফ্রিজ করা হয়েছে জানিয়েছে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)। প্রতিষ্ঠানটি জানিয়েছে, ৬২ সহযোগীর মাধ্যমে অর্থপাচার করেছেন পিকে হালদার। আজ বৃহস্পতিবার দুদক সচিব ড. মু. আনোয়ার হোসেন হাওলাদার এ তথ্য জানান।

এর আগে পিকে হালদারের ৭০ থেকে ৮০ জন গার্লফ্রেন্ড রয়েছে কথা জানায় দুদক। গত ২০ ডিসেম্বর দুদকের আইনজীবী মো. খুরশীদ আলম খান বলেন, ‘পিকে হালদারের এসব গার্লফ্রেন্ডের অ্যাকাউন্টে কোটি কোটি টাকা লেনদেনের তথ্য মিলেছে।’

প্রশান্ত কুমার হালদার, ব্যাংকপাড়ায় পিকে হালদার নামে পরিচিত। তিনি বিভিন্ন আর্থিক প্রতিষ্ঠান থেকে সাড়ে তিন হাজার কোটি টাকা আত্মসাৎ করে লাপাত্তা রয়েছেন। মাঝে একবার টাকা ফেরতের শর্তে দেশে ফিরতে চাইলেও দেশে ফিরলে গ্রেপ্তার হতে হবে হাইকোর্টের এমন আদেশের পর অসুস্থতার কথা বলে আর ফেরেননি তিনি। জানা গেছে, কানাডার বেগমপাড়ায় বাড়ি করে রাজকীয় জীবনযাপন করছেন তিনি।

গত ৩ ডিসেম্বর পিকে হালদারের কানাডার হোল্ডিংয়ের ঠিকানা বাংলাদেশ সরকারকে জানায় কানাডা সরকার। এরপর সেদিন জানানো হয়, যেকোনো দিন পিকে হালদারের বিরুদ্ধে রেড অ্যালার্ট জারি করতে পারে ইন্টারপোল। সেটা দু-একদিনের মধ্যেই হতে পারে। চাইলে আজও রেড অ্যালার্ট জারি করতে পারে বলে সাংবাদিকদের জানিয়েছিলেন দুদকের আইনজীবী মো. খুরশীদ আলম খান। পরে পিকে হালদারের বিরুদ্ধে রেড অ্যালার্ট জারি করেছে ইন্টারপোল।

advertisement
advertisement