advertisement
advertisement
advertisement
DBBL
advertisement
advertisement

জ্ঞান ফিরেছে নাশিদের

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
৯ মে ২০২১ ০০:০০ | আপডেট: ৯ মে ২০২১ ০০:১০
মালদ্বীপের স্পিকার
advertisement

বোমা হামলায় গুরুতর আহত মালদ্বীপের পার্লামেন্ট স্পিকার মোহাম্মদ নাশিদের জ্ঞান ফিরেছে বলে শনিবার জানিয়েছে তার পরিবার। বিস্ফোরণে গুরুতর আহত নাশিদের প্রাণ বাঁচাতে জটিল অস্ত্রোপচার করতে হয়েছে। তার মাথা, বুক, তলপেটসহ শরীরের একাধিক জায়গায় অস্ত্রোপচার করা হয়। অস্ত্রোপচারের পর অবস্থার অবনতি হলে গত শুক্রবার তাকে লাইফ সাপোর্টে নিয়ে যাওয়া হয়।

সাবেক এই প্রেসিডেন্ট গতকাল শনিবার সামাজিক মাধ্যম টুইটারে নাশিদের বোন নাশিদা সাত্তার বলেন, ‘‘লাইফ সাপোর্ট থেকে ফেরার পর নাশিদ বলেছেন, ‘আমি ভালো আছি’।”

নাশিদের ভাই ইব্রাহিম নাশিদ বলেন, তার ভাই যেভাবে চিকিৎসায় সাড়া দিচ্ছেন তাতে চিকিৎসকরা খুশি। এক টুইটে তিনি বলেন, ‘তার লাইফ সাপোর্ট খুলে ফেলা হয়েছে এবং তিনি নিজে নিজে নিঃশ্বাস নিতে পারছেন। কিছু কথাও বলতে পেরেছেন। তিনি আরও শক্তিশালী হয়ে ফিরে আসার প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন। আমি তাকে বিশ্বাস করি।’

গত বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় রাজধানী মালেতে নিজ বাড়ির সামনে বোমা হামলায় গুরুতর আহত হন নাশিদ। হামলায় আরও চারজন আহত হন। যাদের মধ্যে নাশিদের দেহরক্ষী দুইজন। আর ঘটনাস্থলে উপস্থিত দুইজন আহত হন। ওই দুইজনের একজন ব্রিটিশ নাগরিক। তাদের অবস্থা সম্পর্কে বিস্তারিত জানা যায়নি। স্থানীয় গণমাধ্যমের খবরে বলা হয়েছে, নাশিদের গাড়ির কাছে একটি মোটরসাইকেলে ঘরে তৈরি বোমা পাতা ছিল।

এখন পর্যন্ত হামলার দায় কেউ স্বীকার করেনি। পুলিশ বিষয়টি সন্ত্রাসী হামলা হিসেবে বিবেচনা করে তদন্ত করছে। হামলায় জড়িত সন্দেহে শনিবার দুইজনকে গ্রেপ্তারও করা হয়েছে। তবে গ্রেপ্তারের বিষয়ে পুলিশ আর কোনো তথ্য দিতে রাজি হয়নি। মালদ্বীপে গণতান্ত্রিকভাবে নির্বাচিত প্রথম প্রেসিডেন্ট নাশিদ। দেশটিতে চরমপন্থি ইসলামের চর্চার কট্টর সমালোচকদের অন্যতম তিনি।

advertisement