advertisement
DARAZ
advertisement
advertisement
advertisement
DBBL
advertisement
advertisement

মুজিববর্ষে ঘর পেয়ে খুশি আনুবালারা

চৌগাছা (যশোর) প্রতিনিধি
২৪ জুলাই ২০২১ ১২:০০ এএম | আপডেট: ২৩ জুলাই ২০২১ ১১:১০ পিএম
advertisement

মুজিববর্ষে দেওয়া সরকারি জমি ও ঘর পেয়ে খুশি চৌগাছার ৩৫টি পরিবার। সহায়-সম্বলহীন এসব পরিবার মাথা গোঁজার ঠাঁই ও এক টুকরো জমি পেয়ে আশীর্বাদ করছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার জন্য। উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) এবং প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা (পিআইও) নিয়মিত খোঁজখবর রাখছেন পরিবারগুলোর।

স্বামী পরিত্যক্তা ভিক্ষুক আনুবালা (৭০) বিধবা মা সীতা রাণীকে (৯০) নিয়ে থাকছেন উপহারের ঘরে। আনুবালা জানান, তিনি মায়ের একমাত্র সন্তান। কৈশোরে বিয়ে হওয়ার কিছুদিন পরই স্বামী তাকে রেখে চলে যায়। একপর্যায়ে বৃদ্ধ মাকে নিয়ে খেয়ে-পরে চলতে ভিক্ষাবৃত্তিতে নামেন। জমি না থাকায় গ্রামের একজনের জমিতে কোনো রকমে ঝুপড়ি করে থাকতেন মাকে নিয়ে। সরকারিভাবে তাকে জমি ও ঘর দেওয়ায় মাথা গোঁজার ঠাঁই হয়েছে। ভিক্ষাবৃত্তি করেই চলছে তার। আনুবালা বলেন, ‘ঠাকুরের কাছে বলি, হাসিনা যেন আমার মতো যারা আছে সবাইকে এভাবে ঘর দিতে পারে।’

উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা (পিআইও) ইশতিয়াক আহমেদ জানান, উপজেলায় মুজিববর্ষে প্রথম পর্যায়ে ২৫ জনকে জমিসহ ঘর দেওয়া হয়। দ্বিতীয় পর্যায়ে দেওয়া হয়েছে ১০টি পরিবারকে। তিনি আরও জানান, উপজেলার গুয়াতলী, দিঘড়ী ও হায়াতপুর গ্রামের ৭টি করে, কাবিলপুর গ্রামে ৬টি, দিঘলসিংহা গ্রামে ৫টি এবং বলিদাপাড়া গ্রামে ৩টি ঘর তৈরি করে দেওয়া হয়েছে।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা প্রকৌশলী এনামুল হক বলেন, সরকারি জায়গা দখলে নিয়ে মুজিববর্ষে ৩৫টি পরিবারকে প্রধানমন্ত্রীর উপহারের ঘর করে দেওয়া হয়েছে। বরাদ্দের সঠিক ব্যবহার করে ঘরগুলো তৈরি করে দেওয়ার জন্য আমরা চেষ্টা করেছি।

advertisement