advertisement
DARAZ
advertisement
advertisement
advertisement
DBBL
advertisement
advertisement

রাজনীতি নিয়ন্ত্রণ করে শক্তিশালী দেশ ও মহল

মির্জা ফখরুল ইসলাম বিশ্ব রাজনীতি ও দেশের বর্তমান প্রেক্ষাপট প্রসঙ্গে

নিজস্ব প্রতিবেদক
২৭ জুলাই ২০২১ ১২:০০ এএম | আপডেট: ২৬ জুলাই ২০২১ ১০:৫৭ পিএম
advertisement

বর্তমান সময়ে শক্তিশালী দেশ ও মহল রাজনীতি নিয়ন্ত্রণ করে বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। বিশ্ব রাজনীতি ও দেশের বর্তমান প্রেক্ষাপট তুলে ধরে দলের সাবেক সহসাংগঠনিক সম্পাদক প্রয়াত আবদুল আউয়াল খানের প্রথম মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে গতকাল সোমবার স্মরণসভায়

তিনি এ মন্তব্য করেন।

আবদুল আউয়াল খান ফাউন্ডেশনের উদ্যোগে ‘স্মৃতিতে অমøান’ শীর্ষক সভায় ফাউন্ডেশনের প্রধান উপদেষ্টা মনিরুল হক চৌধুরীর সভাপতিত্বে ও ফাউন্ডেশনের আহ্বায়ক অধ্যক্ষ সেলিম ভূঁইয়ার সঞ্চালনায় আরও বক্তব্য রাখেন বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান বরকত উল্লাহ বুলু, মোহাম্মদ শাহজাহান, শামসুজ্জামান দুদু, বিএনপি নেতা আমানউল্লাহ আমান, সৈয়দ এমরান সালেহ প্রিন্স, আবদুস সালাম আজাদ ও প্রয়াত আবদুল আউয়াল খানের ছেলে আসাদুজ্জামান খান। গত বছরের ২০ জুলাই করোনা আক্রান্ত হয়ে মারা যান আবদুল আউয়াল খান।

মির্জা ফখরুল বলেন, এখনকার রাজনীতিটা সম্পূর্ণ ভিন্ন। এখন রাজনীতিকে সঠিক খাতে প্রবাহিত করে না, মানুষকে রাজনীতিতে সঠিকভাবে গঠিত হওয়ার সুযোগ দেয় না। শুধু বাংলাদেশে নয়, সমগ্র বিশ্বেই নষ্ট সময় চলছে। এখন রাজনীতিবিদরা রাজনীতি করছেন না, রাজনীতিবিদরা রাজনীতিতে নেই। এখন রাজনীতি নির্মিত হয় রাজনীতির বাইরে কিছু শক্তিশালী মহল, শক্তিশালী দেশ অথবা কিছু শক্তিশালী ইন্টারনাল ইনসাইড দ্য কান্ট্রি- তারা রাজনীতিকে নির্মাণ করে। রাজনীতি ট্র্যাম্পট হয়ে চলে গেছে, রাজনীতিবিদদের হাতে আর সেই ক্ষমতা নেই।

’৯০, ’৬৯ ও ৭১’-এর মুক্তিযুদ্ধের প্রসঙ্গ টেনে তিনি বলেন, তখনকার সময় এবং বর্তমানে এক যুগের বেশি সময় ধরে দেশে ভিন্ন সময় চলছে। এর মধ্যেও দেশনেত্রী খালেদা জিয়ার নেতৃত্বে বিএনপিকে ধরে রাখতে পেরেছি। বিএনপিকে অনেকবার ভাঙা ও ধ্বংস করে দেওয়ার চেষ্টা হয়েছে, কিন্তু পারেনি। কারণ একটাই শহীদ রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমান যে দর্শন দিয়ে গেছেন, সেটা জনগণের অন্তরে একাত্ম হয়ে গেছে।

আওয়ামী লীগ সরকারের সমালোচনা করে মির্জা ফখরুল বলেন, তারা ক্ষমতায় টিকে থাকতে একদলীয় শাসনব্যবস্থা প্রতিষ্ঠা করতে ১৯৭৫ সালে বাকশাল সৃষ্টি করেছিল, আজকেও ওই অবস্থাই সৃষ্টি করেছে। এটা একদিনে হয়নি। এর মূল বিষয়টা ছিল ওয়ান-ইলেভেন। ১/১১-এর মূল লক্ষ্য ছিল বিরাজনীতিকরণ, এখন সেটাই হচ্ছে।

জনগণের সঙ্গে এই সরকারের কোনো সম্পর্ক নেই। আমলা এবং কিছু দুর্নীতিপরায়ণ ব্যক্তি তাদের যোগসাজশে আজকে তারা ক্ষমতায় টিকে আছে।

নিজেদের বিবেকের কাছে স্বচ্ছ না হলে সফল হওয়া যাবে না উল্লেখ করে বরকত উল্লাহ বুলু বলেন, যোগ্য নেতাদের যোগ্যতম স্থানে দায়িত্ব দিলে দল ও দেশ উপকৃত হবে।

মোহাম্মদ শাহজাহান বলেন, সফল হতে গেলে আদর্শিক ও প্রশিক্ষিত কর্মিবাহিনী গড়ে তুলতে হবে। #

advertisement