advertisement
DARAZ
advertisement
advertisement
advertisement
DBBL
advertisement
advertisement

‘বাবা-মা ক্ষমা করো’ লিখে বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষার্থীর আত্মহত্যা

নিজস্ব প্রতিবেদক
২৪ সেপ্টেম্বর ২০২১ ১১:২৭ এএম | আপডেট: ২৪ সেপ্টেম্বর ২০২১ ০৫:০১ পিএম
প্রতীকী ছবি
advertisement

পাবনা বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (পাবিপ্রবি) এক শিক্ষার্থী আত্মহত্যা করেছে বলে জানা গেছে। গতকাল বৃহস্পতিবার সন্ধ্যা সাড়ে সাতটার দিকে ছাত্রাবাস থেকে তার মৃতদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। মৃত শিক্ষার্থীর নাম তাহমিদুর রহমান জামিল (২২)। তিনি চাঁপাইনবাবগঞ্জ সদর উপজেলার শাহীবাগ এলাকার বজলার রহমানের ছেলে।

জামিল পাবনা বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের সিভিল ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের দ্বিতীয়বর্ষের শিক্ষার্থী ছিলেন।

সহপাঠীদের বরাত দিয়ে পাবনা সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আমিনুল ইসলাম বলেন, পারিবারিক বিষয় নিয়ে কিছুদিন ধরে মানসিক অস্থিরতায় ভুগছিলেন তিনি। তার কক্ষ থেকে একটি সুইসাইড নোটও উদ্ধার করা হয়েছে বলে জানা গেছে। সেটা পড়ে জানা যায়, মানসিক যন্ত্রণায় ভুগছিলেন জামিল। হতাশা পেয়ে বসেছিল তাকে। কোনো কিছুতেই স্বস্তি পাচ্ছিলেন না। ওই সুইসাইড নোটে লেখা ছিল, ‘বাবা-মা ক্ষমা করো। গুড বাই।’

সুইসাইড নোট লিখেই গত বৃহস্পতিবার সন্ধ্যার পর ছাত্রাবাসে নিজের কক্ষে ফ্যানের হুকের সাথে ব্যাগের বেল্ট গলায় পেঁচিয়ে আত্মহত্যা করেন তিনি। তার সাড়াশব্দ না পেয়ে দরজা ভেঙে ঝুলন্ত অবস্থায় তার মৃতদেহ দেখে থানায় খবর দেন তার সহপাঠীরা। পরে পুলিশ গিয়ে তার ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার করে।

প্রাথমিকভাবে জামিল আত্মহত্যা করেছেন বলে ধারণা করা হচ্ছে। তারপরও ময়না তদন্ত করা হবে। তার পরিবারের পক্ষ থেকে এখনও কোনো অভিযোগ পাওয়া যায়নি বলেও জানিয়েছে পুলিশ।

advertisement