advertisement
advertisement
advertisement
DBBL
advertisement
advertisement

প্রথম বাংলাদেশ ওপেন ডেটা সামিট শুরু শনিবার

নিজস্ব প্রতিবেদক
২১ অক্টোবর ২০২১ ১১:২৬ পিএম | আপডেট: ২১ অক্টোবর ২০২১ ১১:২৭ পিএম
advertisement

প্রথম বাংলাদেশ ওপেন ডেটা সামিট শুরু হতে যাচ্ছে আগামী শনিবার। যেখানে দেশের বিভিন্ন খাতের সরকারি ডেটা উন্মুক্তকরণের সর্বশেষ অবস্থা এবং জনকল্যাণে উন্মুক্ত ডেটা ব্যবহারের সম্ভাবনা তুলে ধরা হবে তিনটি থিমে বিভক্ত এই সামিটে। থিমগুলো হলো- ডেটার প্রাপ্যতা (অ্যাভেইল্যাবিলিটি), ডেটার অভিগম্যতা (অ্যাক্সেসিবিলিটি) ও ডেটা ভিত্তিক উদ্ভাবন (ইনোভেশন)।

সামিটে যেসব বাংলাদেশি প্রতিষ্ঠান নিচ্ছে সেগুলো হলো- এটুআই, বাংলাদেশ পরিসংখ্যান ব্যুরো, বাংলাদেশ ইন্সটিটিউট অব ব্যাংক ম্যানেজমেন্ট, ইউনিভার্সিটি অব লিবারাল আর্টস বাংলাদেশ, বাংলাদেশ ইন্সটিটিউট অব আইসিটি ইন ডেভেলপমেন্ট, বাংলাদেশ ইন্সটিটিউট অব গভর্ন্যান্স অ্যান্ড ম্যানেজমেন্ট ও সাউথ এশিয়া সেন্টার ফর মিডিয়া ডেভেলপমেন্ট।

সামিটের যেসব বিদেশি প্রতিষ্ঠান অংশ নিচ্ছে- ভারতের ডেটালিডস, নেপালের ফ্রিডম ফোরাম, আমেরিকাভিত্তিক ওপেন ডেভেলপমেন্ট ইনিশিয়েটিভ ও জার্মানির ডিডব্লিউ একাডেমি।

অক্টোবরে ইউনেস্কোর গ্লোবাল মিডিয়া অ্যান্ড ইনফরমেশন লিটারেসি উইক উদযাপনের অংশ হিসেবে এ সামিট আয়োজন করছে ডেটাফুল। তিন দিনব্যাপী সামিটের সূচনা হবে আগামী শনিবার বাংলাদেশ সময় সকাল ১০টায়। সামিটের সব সেশন অনুষ্ঠিত হবে অনলাইন প্লাটফর্ম জুমে।

শুক্রবার বেলা ১২টা পর্যন্ত সামিটে বিনামূল্যে নিবন্ধন করা যাবে এই লিঙ্কে: https://summit.dataful.xyz/register-2/  । সামিটের প্রতিটি সেশন ডেটাফুলের ফেইসবুকে পেইজে সরাসরি প্রচার হবে।

ডেটাভিত্তিক তিন বিষয় নিয়ে সাজানো হয়েছে সামিট। প্রথম দিনের বিষয় দেশের উন্মুক্ত ডেটার প্রাপ্যmতা (অ্যাভেইলিবিলিটি)। এদিন অতিথিরা আলোকপাত করবেন দেশের সরকারি-বেসরকারি প্রতিষ্ঠান ডেটা উম্মুক্ত করার ক্ষেত্রে কতটা এগিয়েছে এ বিষয়ে।

সামিটের দ্বিতীয় দিনের আলোচনার বিষয়বস্তু ডেটার অভিগম্যতা (অ্যাক্সেসিবিলিটি)। উম্মুক্ত ডেটা ব্যবহারের ক্ষেত্রে মানুষের প্রতিবন্ধকতাগুলো কী সে বিষয়ে বক্তব্য রাখবেন অতিথিরা।

শেষ দিনে অতিথিরা বলবেন উম্মুক্ত ডেটার ভিত্তিতে নতুন উদ্ভাবন (ইনোভেশন) বিষয়ে, কিভাবে উন্মুক্ত ডেটাকে মানুষের কল্যাণে কাজে লাগানো যায় সে বিষয়ে।

এই সামিটের মাধ্যমে ওপেন ডেটা উৎপন্নকারী প্রতিষ্ঠান, ব্যবহারকারী ও নতুন উদ্ভাবকদের এক প্লাটফর্মে আনা সম্ভব হবে বলে আশা প্রকাশ করে প্রথম বেসরকারি আয়োজক প্রতিষ্ঠান ডেটাফুল।

advertisement
advertisement