advertisement
advertisement
advertisement
DBBL
advertisement
advertisement

যুক্তরাষ্ট্র দুর্বল গণতন্ত্রের দেশকে আমন্ত্রণ জানিয়েছে

সাংবাদিকদের পররাষ্ট্রমন্ত্রী

কূটনৈতিক প্রতিবেদক
২৬ নভেম্বর ২০২১ ১২:০০ এএম | আপডেট: ২৬ নভেম্বর ২০২১ ০২:৩৪ এএম
advertisement

পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. একে আবদুল মোমেন দাবি করেছেন, গণতন্ত্র সম্মেলনের প্রথম পর্বে যুক্তরাষ্ট্র সম্ভবত দুর্বল গণতন্ত্রের দেশগুলোকে আমন্ত্রণ জানিয়েছে। সে কারণে সম্মেলনে বাংলাদেশ আমন্ত্রণ পায়নি। গতকাল বৃহস্পতিবার ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে জলবায়ু পরিবর্তন সংক্রান্ত এক আলোচনাসভা শেষে সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে তিনি এ দাবি করেন।

পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, গত কয়েক বছর ধরে বাংলাদেশে স্থিতিশীল গণতন্ত্র বিরাজ করছে। এটি অত্যন্ত স্বচ্ছ গণতন্ত্র। জনগণ সুষ্ঠু ও মুক্তভাবে ভোট দিতে পারছে। আমাদের দেশে সব মানুষ ভোট দিতে পারে। ইচ্ছা থাকলে উপায় থাকে এবং সেই দৃষ্টিকোণ থেকে আমাদের অবস্থা অনেক ভালো।

আগামী ৯ ও ১০ জানুয়ারি যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন ভার্চুয়াল গণতন্ত্র সম্মেলনের আহ্বান করেছেন। ১১০টি দেশকে এতে আমন্ত্রণ জানানো হয়েছে। বাংলাদেশ এ সম্মেলনে আমন্ত্রণ না পেলেও, দক্ষিণ এশিয়া থেকে আছে ভারত, পাকিস্তান ও নেপাল। পররাষ্ট্রমন্ত্রী মোমেন অবশ্য বলেছেন, কী প্যারামিটারে দেশগুলোকে আমন্ত্রণ জানানো হয়েছে সেটা যুক্তরাষ্ট্রের ব্যাপার।

বাংলাদেশকে এ সম্মেলন থেকে বাদ দেওয়া হয়েছে বলে ড. মোমেন একমত নন। তিনি বলেন, তারা দুই ধাপে এ সম্মেলন করবে। এ বছর এবং আগামী বছর। প্রথম ধাপে কয়েকটি দেশ যোগ দেবে। আমরা হয়তো দ্বিতীয় পর্বে আমন্ত্রণ পাব।

যুক্তরাষ্ট্র বাংলাদেশের গুরুত্বপূর্ণ উন্নয়ন সহযোগী উল্লেখ করে ড. মোমেন বলেন, আমাদের গণতন্ত্র কীভাবে চলবে তা নিয়ে আমাদের ভাবা উচিত। আমরা অন্যের পরামর্শ নিয়ে চলব না। আমরা অন্যের পরামর্শে কাজ করি না, জনগণের কল্যাণে কাজ করি। আমরা প্রতিনিয়ত গণতন্ত্রের উন্নয়নের চেষ্টা করছি।

advertisement
advertisement