advertisement
advertisement
advertisement
DBBL
advertisement
advertisement

এবার পদ্মায় ধরা পড়ল ৩০ কেজির কাতলা মাছ

লৌহজং (মুন্সীগঞ্জ) প্রতিনিধি
১৫ জানুয়ারি ২০২২ ১২:০০ এএম | আপডেট: ১৫ জানুয়ারি ২০২২ ০৩:২২ এএম
advertisement

মুন্সীগঞ্জের লৌহজং উপজেলায় পদ্মা নদীর ভাগ্যকুল এলাকায় ৩০ কেজি ওজনের একটি কাতলা মাছ ধরা পড়েছে। গতকাল শুক্রবার ভোরে সোহেল কাজী নামে এক জেলের জালে মাছটি ধরা পড়ে। জেলে সোহেল কাজী ফরিদপুর সেবা মৎস্যজীবী সমবায় সমিতির সদস্য।

তিনি বলেন, এ মৌসুমে এবারই প্রথম নদী থেকে এত বড় কাতলা মাছ আমাদের জালে ধরা পড়ল। মাছটি মাওয়া মৎস্য আড়তের ঘাট এলাকার মৎস্য ব্যবসায়ী মো. মোকলেসুর রহমান শেখ কিনে নেন ৪৫ হাজার ৫০০ টাকায়।

মৎস্য শিকারি আরও জানান, প্রতিদিনের মতো গত বৃহস্পতিবার রাতে সহযোগীদের নিয়ে পদ্মায় মাছ শিকার করতে যান তিনি। গেল মৌসুমে ইলিশ শিকারে নিষেধাজ্ঞার কারণে বেশ অনেক দিন বেকার বসে ছিলেন তারা। নিষেধাজ্ঞা শেষ হওয়ার পর নদীতে মাছ শিকারে নামলেও ছোট ইলিশ মাছ ছাড়া আর তেমন কিছুই পাননি। রাত ৩টার দিকে মাওয়া ঘাটের পশ্চিমের এলাকায় তারা জাল ফেলেন। অতঃপর একই উপজেলার উজানের এলাকায় গিয়ে জাল ওঠানো শুরু করেন।

ভোররাত ৪টার দিকে মাছটি তুলে ফেরি ঘাট সংলগ্ন মাওয়া মৎস্য আড়তের

যান তিনি। মাছটির ওজন ৩০ কেজি। নদীতে বড় কাতলা মাছ ধরা পড়ার খবর পেয়ে ছুটে আসেন কয়েকজন বেপারি। পরে তিনি মোকলেছুর নামে এক মৎস্য আড়তদারের কাছে ১ হাজার ৫০০ টাকা কেজি দরে মাছটি বিক্রি করেন ৩০ হাজার ৫০০ টাকায়।

উপজেলা মৎস্য কর্মকর্তা মো. আসাদুজ্জামান আসাদ বলেন, নদীতে এখন মাঝেমধ্যে বিরল প্রজাতির বড় ধরনের মাছ পাওয়া যায়। তবে ৩০ কেজি ওজনের কাতলা মাছ খুব বেশি ধরা পড়ে না। এ মৌসুমে গভীর পানি থেকে অল্প পানিতে ডিম ছাড়ার জন্যই আসে। এ সময় ধরা পড়ে জেলেদের জালে ধরাা পড়ে বড় মাছগুলো। আশা করি নদীতে আরও বড় মাছ পাওয়া যাবে। গেল মৌসুমে ইলিশ শিকারে নিষেধাজ্ঞার কারণে অনেক দিন জেলেদের মাছ ধরা বন্ধ ছিল। তাই নদীতে রয়েছে বিভিন্ন জাতের বড় সাইজের প্রচুর মাছ।

advertisement
advertisement