advertisement
advertisement
advertisement
DBBL
advertisement
advertisement

বিধিনিষেধ না মানলে লকডাউন : স্বাস্থ্যমন্ত্রী

নিজস্ব প্রতিবেদক
১৫ জানুয়ারি ২০২২ ১২:১৭ পিএম | আপডেট: ১৫ জানুয়ারি ২০২২ ০৭:০৩ পিএম
মানিকগঞ্জে স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক। ছবি : সংগৃহীত
advertisement

দেশে করোনাভাইরাসের সংক্রমণ রোধে চলমান ১১ দফা বিধিনিষেধ অমান্য করলে লকডাউন দেওয়া হতে পারে বলে জানিয়েছেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক। আজ শনিবার বেলা সাড়ে ১১টার দিকে মানিকগঞ্জ ২৫০ শয্যা বিশিষ্ট জেলা হাসপাতালে ডায়ালাইসিস ইউনিট ও সিটি স্ক্যান মেশিন উদ্বোধন শেষে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি একথা জানান।

স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, ‘করোনা এখন উর্দ্ধমুখী। গতকাল চার হাজার ৪০০ মানুষ নতুন করে করোনায় আক্রান্ত হয়েছে। আক্রান্তের হার ১৩ শতাংশ ছাড়িয়ে গেছে। প্রতিদিন যে হারে করোনা রোগী শনাক্ত হচ্ছে তা আশঙ্কাজনক। আমি একটি সমীক্ষায় দেখেছি, আক্রান্ত যদি আড়াই হাজার হয়, সেখানে হাসপাতালে ভর্তি হচ্ছে দুই থেকে তিন শতাধিক রোগী। এর মধ্যে বর্তমানে এক শতাংশ রোগীর আইসিইউ প্রয়োজন হচ্ছে। এভাবে রোগী ও সংক্রমণ বৃদ্ধি পেলে হাসপাতালে যায়গা হবে না।’

তিনি বলেন, ‘আন্তর্জাতিক বানিজ্য মেলায় বেশীরভাগ লোকই মাস্ক ছাড়া। এটা খুবই দু:খজনক। তবে আশার আলো হচ্ছে আগের চেয়ে অনেক মানুষ মাস্ক পড়ে। তাই সকলকে মাস্ক পড়তে হবে।’

জাহিদ মালেক বলেন, ‘আমরা ইতোমধ্যে সাড়ে আট কোটি প্রথম ডোজ টিকা দিয়ে ফেলছি। ২য় ডোজও পৌঁনে ছয় কোটি দেওয়া হয়েছে। সব মিলিয়ে সোয়া ১৪ কোটি টিকা দেওয়া সম্পন্ন হয়েছে। স্কুল শিক্ষার্থীদের ৭০ লাখ টিকা দেওয়া হয়েছে। তাদের এক কোটি ২৫ লাখ টিকার প্রয়োজন পড়বে। এ মাসেই সকল শিক্ষার্থী আসলে সেটা পূরণ করা সম্ভব। যারা এখনো টিকা নেন নাই তাদেরও তিনি টিকার নেওয়ার আহ্বান করেন।’

এ সময় জেলা প্রশাসক মুহাম্মদ আব্দুল লতিফ, পুলিশ সুপার গোলাম আজাদ খান, আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আব্দুস সালাম, সিনিয়র সহ-সভাপতি রমজান আলী, যুগ্ম সম্পাদক সুলতানুল আজম খান আপেল, সদর উপজেলা আ.লীগের সাধারণ সম্পাদক আফসার উদ্দিন সরকারসহ স্বাস্থ্য বিভাগের বিভিন্ন পর্যায়ের কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

advertisement
advertisement