advertisement
advertisement
advertisement
DBBL
advertisement

করোনাকালে দ্বিগুণ হয়েছে শীর্ষ ১০ ধনীর সম্পদ

অনলাইন ডেস্ক
১৭ জানুয়ারি ২০২২ ০২:২৯ পিএম | আপডেট: ১৭ জানুয়ারি ২০২২ ০২:৩০ পিএম
ছবি : সংগৃহীত
advertisement

মহামারি করোনার আবির্ভাবের পর দরিদ্র মানুষের সংখ্যা যেমন বেড়েছে, তেমনই অর্থবিত্তে ফুলে-ফেঁপে উঠেছেন একশ্রেণির মানুষ। আন্তর্জাতিক দাতব্য সংস্থা অক্সফাম বলেছে, মহামারিকালে বিশ্বে শীর্ষ ১০ ধনীর সম্পদ দ্বিগুণ হয়েছে। এর বিপরীতে দারিদ্র্য ও অসমতা বেড়েছে।

বার্তা সংস্থা এএফপির খবরে বলা হয়, সুইজারল্যান্ডের ডাভোসে ওয়ার্ল্ড ইকোনমিক ফোরামের সম্মেলন শুরুর আগে আজ সোমবার আন্তর্জাতিক দাতব্য সংস্থা অক্সফাম এক প্রতিবেদনে এমন তথ্য জানিয়েছে।

অক্সফাম জানায়, ২০২০ সালের মার্চ মাস থেকে এখন পর্যন্ত বিশ্বের শীর্ষ ১০ ধনী তাদের সম্পদ ৭০ হাজার কোটি মার্কিন ডলার বাড়িয়েছেন। প্রতিদিন গড়ে তাদের সম্পদ বেড়েছে ১৩০ কোটি ডলার করে। শীর্ষ ১০ ধনীর সম্পদ যে হারে বেড়েছে, গত বছরে ১৪ বছরে কখনো তেমনটা হয়নি।

অক্সফাম বলছে, অর্থনৈতিক অসমতার কারণে স্বাস্থ্য সেবায় সংকট দেখা দিচ্ছে। একই সঙ্গে ক্ষুধা, লিঙ্গ বৈষম্যতা এবং সহিংসতা ও জলবায়ু পরিবর্তনের কারণে প্রতিদিন বিশ্বব্যাপী ২১ হাজার মানুষের মৃত্যু হচ্ছে। এ ছাড়াও মহামারির কারণে ১৬ কোটি মানুষ নতুন করে দরিদ্র হয়েছে। একই সঙ্গে অসমতা বেড়ে যাওয়ায় সবচেয়ে বেশি ক্ষতিগ্রস্থ হয়েছে অশ্বেতাঙ্গ সংখ্যালঘু জাতিসত্তার মানুষ ও নারীরা।

যুক্তরাষ্ট্রের ফোর্বস সাময়িকীর তৈরি করা বিশ্বের শীর্ষ ধনীর তালিকা-

১. টেসলা ও স্পেস এক্সের প্রতিষ্ঠাতা ইলন মাস্ক
২. আমাজনের প্রতিষ্ঠাতা জেফ বেজোস
৩. গুগলের প্রতিষ্ঠাতা ল্যারি পেজ
৪. গুগলের প্রতিষ্ঠাতা সের্গেই ব্রিন
৫. ফেসবুকের প্রতিষ্ঠাতা মার্ক জাকারবার্গ
৬. মাইক্রোসফটের প্রতিষ্ঠাতা বিল গেটস
৭. মাইক্রোসফটের সাবেক প্রধান নির্বাহী স্টিভ বলমার
৮. ওরাকলের সাবেক প্রধান নির্বাহী ল্যারি এলিসন
৯. মার্কিন বিনিয়োগকারী ওয়ারেন বাফেট
১০. ফ্রান্সের ফ্যাশন জায়ান্ট এলভিএমএইচের প্রধান বার্নার্ড আর্নল্ট