advertisement
advertisement
advertisement
DBBL
advertisement

তিন দম্পতিসহ নিহত ৯

বাস, প্রাইভেটকার ও মোটরবাইকের ত্রিমুখী সংঘর্ষ

আমাদের সময় ডেস্ক
১৫ মে ২০২২ ১২:০০ এএম | আপডেট: ১৫ মে ২০২২ ০২:০৩ এএম
অসুস্থ মাকে দেখতে যাওয়ার পথে ফেরিতে স্ত্রী-সন্তানের সঙ্গে সেলফি তুলে ফেসবুকে পোস্ট দেওয়ার কিছু সময় পরই দুর্ঘটনায় স্ত্রী-সন্তানসহ নিহত হন বারডেমের ডাক্তার বাসুদেব সাহা ষফেসবুক
advertisement

গোপালগঞ্জের কাশিয়ানীতে যাত্রীবাহী বাস, প্রাইভেটকার ও মোটরসাইকেলের সংঘর্ষে তিন দম্পতিসহ ৯ জন নিহত হয়েছেন। আহত হয়েছেন অন্তত ২৫ জন। গতকাল বেলা ১১টার দিকে ঢাকা-খুলনা মহাসড়কের উপজেলার দক্ষিণ ফুকরা এলাকায় এ দুর্ঘটনা ঘটে। নিহতদের মধ্যে রাজধানীর বারডেম হাসপাতালের এক চিকিৎসক, তার স্ত্রী ও ছেলে রয়েছেন। আহতদের গোপালগঞ্জ ২৫০ শয্যাবিশিষ্ট জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। ঘটনার পর প্রায় দুই ঘণ্টা মহাসড়কে যান চালচল বন্ধ থাকে। রাস্তার দুই পাশে শত শত যানবাহন আটকা পড়ে। এতে ভোগান্তিতে পড়েন মানুষ। দুর্ঘটনার খবর পেয়ে ঘটনাস্থল পরিদর্শনে যান জেলা প্রশাসক সাহিদা সুলতানা এবং পুলিশ সুপার আয়েশা সিদ্দীকা।

এদিকে গতকাল মুন্সীগঞ্জের টঙ্গীবাড়ি, টাঙ্গাইলের মধুপুর, পাবনার ঈশ^রদী, গাইবান্ধার গোবিন্দগঞ্জ ও সাতক্ষীরার পাটকেলঘাটায় সড়কে প্রাণ গেছে আরও ছয়জনের। প্রতিনিধিদের পাঠানো খবর-

গোপালগঞ্জ : ঢাকা-খুলনা মহাসড়কের কাশিয়ানীর দক্ষিণ ফুকরা এলাকায় বরগুনার পাথরঘাটা থেকে ছেড়ে আসা ঢাকাগামী রাজিব পরিবহনের একটি যাত্রীবাহী বাসের সঙ্গে ঢাকা থেকে ছেড়ে আসা প্রাইভেটকার ও কাশিয়ানী সদর থেকে ছেড়ে আসা মোটরসাইকেলের ত্রিমুখী সংঘর্ষ হয়। এ সময় দুমড়ে-মুচড়ে যাওয়া প্রাইভটকারটি সড়কের পাশে ধান মাড়াইরত শ্রমিক ও মেশিনের ওপর ছিটকে পড়ে। আর বাসটি রাস্তার পাশে গাছের সঙ্গে ধাক্কা লেগে রাস্তার ওপর আছড়ে পড়ে। এতে ঘটনাস্থলে প্রাইভেটকারে থাকা এক পরিবারের তিনজন ও চালক, মোটরসাইকেলের দুই আরোহী, ধান মাড়াইরত স্বামী-স্ত্রীসহ এবং বাসের এক যাত্রী নিহত হন।

নিহতরা হলেন- ঢাকা বারডেম হাসপাতালের চিকিৎসক গোপালগঞ্জ শহরের বটতলা এলাকার প্রফুল্ল কুমার সাহার ছেলে ডা. বাসুদেব কুমার সাহা (৫২), তার স্ত্রী শিবানী সাহা (৪৮), ছেলে আহসান উল্লাহ প্রকৌশলী বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী স্বপ্নীল সাহা (১৯) ও তাদের ব্যক্তিগত গাড়িচালক আজিজুর ইসলাম (৪৪), কাশিয়ানী উপজেলার দক্ষিণ ফুকরা গ্রামের পিয়ার আলী মোল্যার ছেলে ফিরোজ মোল্যা (৪৮), তার স্ত্রী রুমা বেগম (৪০), একই গ্রামের জিন্দার ফকিরের ছেলে অনিক বাবু (২৮) ও তার বাগদত্তা স্ত্রী ইয়াসমিন আক্তার (১৯) এবং পাথরঘাটা গ্রামের চরদোয়ানী গ্রামের আব্দুর রশিদের ছেলে আলতাফ হোসেন খান (৫৫)।

এ ঘটনায় আহত ৩০ জনের মধ্যে ১৯ জনের পরিচয় পাওয়া গেছে। তারা হলেনÑ আলিফ (৫), গোপালগঞ্জের দিদার শরীফ (৫০), সোবাহান (৩৮), রুমা (৩০), মাসুম মোল্লা (১৩), ইসমত আরা (৪০), সিফাত (৩), নড়াইলের বাদল (২৫), বায়েজিদ (১২), মারুফ (২২), ঢাকার আরজু বেগম (৩৫), ফারুক হোসেন (৫০), হিরা বেগম (৩৬), হাওয়া বেগম (৩৪), হোসাইনুর (১২), আব্দুর রহমান (৫), পিরোজপুরের কালাম মোল্যা (৪৭), কামরুল (৪৬) ও শরীয়তপুরের জোহরা (৭৫)।

মুন্সীগঞ্জ : টঙ্গীবাড়ি উপজেলায় গভীর রাতে ঘুরতে বেরিয়ে নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে প্রাইভেটকার খালে পড়ে দুই বন্ধুর মৃত্যু হয়। এ ঘটনায় আরেকজন গুরুতর আহত হয়ে হাসপাতালে ভর্তি রয়েছেন। গত শুক্রবার রাত সাড়ে ৩টার দিকে উপজেলার পুরাবাজার এলাকার নির্মাণাধীন সেতুর খাদে পড়ে এ দুর্ঘটনা ঘটে। নিহতরা হলেনÑ মুন্সীগঞ্জ সদর উপজেলার উত্তর চরমসুরা এলাকার মো. মানিক মিয়ার ছেলে মো. জিসান (১৯) এবং একই এলাকার সরবতুল্লার ছেলে ফাহিম (১৭)। জিসান এবার স্থানীয় একটি উচ্চবিদ্যালয় থেকে এসএসসি পাস করেছেন। আর ফাহিম দশম শ্রেণির ছাত্র ছিল। এ ঘটনায় আহত জাহিদ হাসানকে (১৬) মুন্সীগঞ্জ জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। উত্তর চরমসুরা গ্রামের মানিক মিয়ার জামাতা লিখন ব্যক্তিগত গাড়ি নিয়ে শ্বশুরবাড়িতে বেড়াতে আসেন। পরে মানিক মিয়ার ছেলে জিসান তার দুই বন্ধু ফাহিম ও জাহিদকে নিয়ে শুক্রবার রাতে ঘুরতে বেন হন। রাত সাড়ে ৩টার দিকে ওই তিন বন্ধু টঙ্গীবাড়ি উপজেলার পুরাবাজারের কাছাকাছি আসেন। সেখানে নির্মাণাধীন সেতুর নিচে ব্যক্তিগত গাড়িটি পড়ে যায়। পরে তাদের উদ্ধার করে মুন্সীগঞ্জ সদর হাসপাতালে নিয়ে গেলে চিকিৎসক দুজনকে মৃত ঘোষণা করেন।

টঙ্গীবাড়ি থানার ওসি মোল্লা শোহেব আলী বলেন, নিহতদের ড্রাইভিং লাইসেন্স ছিল কিনা এবং তারা সেখানে কী করছিল তা তদন্তসাপেক্ষে বলা যাবে। এ ঘটনায় পরবর্তী আইনগত ব্যবস্থা প্রক্রিয়াধীন।

পাবনা : ঈশ্বরদীতে ইঞ্জিনচালিত তিন চাকার যান নসিমন উল্টে আবদুর রহমান (৩৫) নামে এক ব্যক্তি নিহত হন। শনিবার সকালে উপজেলার রূপপুরে নির্মাণাধীন পারমাণবিক বিদ্যুৎ প্রকল্পের সামনে পাবনা-কুষ্টিয়া মহাসড়কে এ দুর্ঘটনা ঘটে। নিহত আবদুর রহমান পেশায় গরু ব্যবসায়ী ছিলেন। তার বাড়ি পাবনা জেলার সাঁথিয়া উপজেলার কাশিনাথপুর গ্রামে। তিনি গরু কিনতে নসিমনে হাটে যাচ্ছিলেন।

টাঙ্গাইল : মধুপুরে দুই বাসের মুখোমুখি সংঘর্ষে শামীম নামে প্রান্তিক পরিবহনের এক চালক নিহত হন। শনিবার সকাল ৮টার দিকে উপজেলার গাংগাইর এলাকায় টাঙ্গাইল-ময়মনসিংহ সড়কে এ দুর্ঘটনা ঘটে। এতে দুই বাসের কমপক্ষে ২৫ জন গুরুতর আহত হন। পুলিশ, ফায়ার সার্ভিসের কর্মী ও স্থানীয়রা তাদের টাঙ্গাইল এবং ময়মনসিংহ মেডিক্যাল কলেজ (মমেক) হাসপাতালে ভর্তি করেন। নিহত শামীমের বাড়ি টাঙ্গাইল সদরে।

গাইবান্ধা : গোবিন্দগঞ্জে ইজিবাইকের ধাক্কায় আমিনুল ইসলাম (৪৫) নামে এক মোটরসাইকেল আরোহী নিহত হন। গত শুক্রবার রাত ৮টার দিকে গোবিন্দগঞ্জ-রাজাবিরাট সড়কের মদনপুর এলাকায় এ দুর্ঘটনা ঘটে। আমিনুল উপজেলার ফুলবাড়ী ইউনিয়নের হাতিয়াদহ গ্রামের মৃত ফজল হকের ছেলে।

সাতক্ষীরা : পাটকেলঘাটা বাজারের কাছে ট্রাকচাপায় মো. আবু তাহের (১৪) নামে ব্যাটারিচালিত এক ভ্যানচালক নিহত হন। গতকাল শনিবার সকাল ১০টার দিকে সাতক্ষীরা-খুলনা মহাসড়কে এ দুর্ঘটনা ঘটে। নিহত তাহের পাটকেলঘাটা থানার চৌগাছা গ্রামের শেখ নাসির উদ্দিনের ছেলে।