advertisement
advertisement
advertisement
advertisement

অর্ধেক রুশ বিচ্ছিন্নতাবাদী নিহত

দনেৎস্কে যুদ্ধ

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
২৩ জুন ২০২২ ১২:০০ এএম | আপডেট: ২২ জুন ২০২২ ১০:৫২ পিএম
advertisement

ইউক্রেনের পূর্বাঞ্চলে দনেৎস্কে রাশিয়া সমর্থিত অথবা যেসব রুশ বিচ্ছিন্নতাবাদী যুদ্ধ করছে তাদের মধ্যে অর্ধেকের বেশি সদস্য নিহত অথবা আহত হয়েছেন। সাম্প্রতিক সময়ে তাদের বড় ধরনের ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে। ব্রিটিশ গোয়েন্দা সূত্রের বরাত দিয়ে গতকাল এ খবর জানিয়েছে বিবিসি। খবরে বলা হয়, শুধু দনেৎস্কেই রুশ সমর্থিত মূল বাহিনীর মধ্যে ৫৫% সদস্য নিহত অথবা আহত হয়ে যুদ্ধ ক্ষেত্র থেকে দূরে আছেন। ব্রিটিশ গোয়েন্দা সূত্র জানিয়েছে, রাশিয়া হয়তো পূর্বাঞ্চল কব্জায় আনতে আরও বড় সংখ্যায় সেনা মোতায়েন করতে যাচ্ছে। পূর্বাঞ্চলে যেসব যোদ্ধা আগে থেকেই রাশিয়ার হয়ে যুদ্ধ করছিল তাদের ক্ষতি পুষিয়ে নিতে রাশিয়া উল্লেখযোগ্য পদক্ষেপ নেবে।

advertisement

এদিকে ইউক্রেনীয় নেতারা বলছে, রুশ বাহিনী দনেৎস্কের পাশর্^বর্তী শহর লুহানস্ক জয়ের দিকে মনোনিবেশ করছে। সম্প্রতি লিসিচানস্ক শহর ঘিরে ফেলার লক্ষ্যে রুশ বাহনী তৎপর হয়েছে। ইউক্রেনের আঞ্চলিক প্রধান সেরহাই হাইদাই বলেছেন, রুশ বাহিনী ওই শহরে ব্যাপক ধ্বংসযজ্ঞ চালাচ্ছে। আর দনবাসের যে গুরুত্বপূর্ণ শহর দখলের জন্য রুশ বাহিনী মরিয়া হয়ে লড়ছে সেই সেভেরোদোনেৎস্কে তিনি ‘নরকের’ সঙ্গে তুলনা করেছেন। শহরটিতে এখনো সাত থেকে আট হাজার বেসামরিক লোক রয়েছে বলেও তিনি জানিয়েছেন।

খারকিভে রুশ হামলায় নিহত ১৫

ইউক্রেনের খারকিভে রুশ বাহিনীর হামলায় গত মঙ্গলবার কমপক্ষে ১৫ জন নিহত হয়েছেন। নিহতদের মধ্যে আট বছর বয়সী এক শিশুও রয়েছে। খারকিভের গভর্নর ওলেগ সিনেগুবভ এ তথ্য জানিয়েছেন। উত্তর-পূর্ব ইউক্রেনে অবস্থিত খারকিভ অঞ্চলটি রাশিয়ার সীমান্তবর্তী এলাকা। গত ফেব্রুয়ারি মাসের শেষের দিকে রুশ সামরিক অভিযান শুরু হওয়ার পর অঞ্চলটি থেকে বহু মানুষ ঘরবাড়ি ছেড়ে পালিয়ে যায়। সম্প্রতি অনেক বাসিন্দা ইউক্রেনের দ্বিতীয় বৃহত্তম এ শহরে ফিরতে শুরু করেছেন। আর এর মধ্যেই মঙ্গলবার রাশিয়ার এ হামলা হলো।

এলো জার্মানির আধুনিক ক্ষেপণাস্ত্র

ইউক্রেনের জন্য জার্মানির প্রতিশ্রুত ভারী অস্ত্রশস্ত্রের প্রথম চালানে জার্মানির স্ব-চালিত ছোট কামান বা হাউইৎজার ইউক্রেনে পৌঁছেছে। গত মঙ্গলবার ইউক্রেইনের প্রতিরক্ষামন্ত্রী ওলেকসি রেজনিকভ এ খবর নিশ্চিত করেছেন। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে রেজনিকভ বলেন, আমাদের গুদাম ফের পূরণ হচ্ছে। ইউক্রেনের কামান পরিবারে জার্মান পানসাহাউবিৎসা ২০০০, সঙ্গে প্রশিক্ষিত ইউক্রেনীয় ক্রু যুক্ত হয়েছে। পানসাহাউবিৎসা ২০০০ জার্মানির ভা-ারে থাকা শক্তিশালী কামানের মধ্যে অন্যতম; এটি ৪০ কিলোমিটার পর্যন্ত দূরের লক্ষ্যে আঘাত হানতে পারে।

advertisement