advertisement
advertisement
advertisement
advertisement

ব্রহ্মপুত্র-যমুনা নদীর পানি বাড়তে পারে

নিজস্ব প্রতিবেদক
২৬ জুন ২০২২ ১২:০০ এএম | আপডেট: ২৫ জুন ২০২২ ১১:৫২ পিএম
advertisement

আগামী ১০ দিনে ব্রহ্মপুত্র-যমুনা নদীর পানি আরও বাড়তে পারে। ব্রহ্মপুত্র নদের অববাহিকার অন্যান্য পয়েন্টে পানি বিপদসীমা অতিক্রম করতে পারে। গতকাল শনিবার বন্যা তথ্যকেন্দ্রের এক পূর্বাভাসে জানানো হয়, গঙ্গা-পদ্মা নদীর পানি আগামী দুদিন কমতে পারে এবং তার পর বাড়তে পারে। এই সময়সীমার মধ্যে গঙ্গা নদীর অববাহিকায় পানি বিপদসীমা অতিক্রম করার সম্ভাবনা নেই।

পূর্বাভাসে বলা হয়, দেশের প্রধান সব নদনদীর পানি হ্রাস পাচ্ছে। গত ২৪ ঘণ্টায় সারাদেশের উল্লেখযোগ্য নদীর মধ্যে সিলেটের সুরমা নদীর ৮ সেন্টিমিটার পানি কমেছে, কানাইঘাট পয়েন্টে সুরমা নদীতে ১২ সেন্টিমিটার পানি কমেছে। পুরাতন সুরমা নদী, কুশিয়ারা নদীর ৫টি পয়েন্টে এবং খালিয়াজুড়ির বাউলাই পয়েন্টে পানি কমেছে।

advertisement 3

অন্যদিকে বন্যা তথ্যকেন্দ্রের মতে, ঢাকার চারপাশের নদীগুলোর পানি বাড়তে পারে। আপাতত ঢাকার চারপাশের নদীগুলোর অববাহিকায় বিপদসীমা অতিক্রমের সম্ভাবনা নেই। দেশের সব প্রধান নদনদীগুলোর পানি কমে যাচ্ছে।

advertisement 4

আবহাওয়া সংস্থাগুলোর গাণিতিক মডেলভিত্তিক পূর্বাভাস অনুযায়ী, আগামী ৪৮ ঘণ্টায় তিস্তা বেসিন ছাড়া দেশের অভ্যন্তরে এবং উজানের বিভিন্ন অংশে ভারী থেকে অতিভারী বর্ষণের সম্ভাবনা কম। আগামী ৪৮ ঘণ্টায় ব্রহ্মপুত্র-যমুনা, গঙ্গা-পদ্মা, ধরলা, দুধকুমার এবং দেশের উত্তর-পূর্বাঞ্চলের সব প্রধান নদনদীর পানি কমতে পারে। এই সময়ে ভারতের হিমালয় পাদদেশীয় পশ্চিমবঙ্গে (জলপাইগুড়ি, সিকিম) মাঝারি থেকে ভারী বৃষ্টিপাতের পূর্বাভাস রয়েছে। ফলে ওই সময়ে তিস্তা নদীর পানি বিপদসীমার কাছাকাছি অবস্থান করতে পারে।

পরবর্তী ২৪ ঘণ্টায় দেশের উত্তর-পূর্বাঞ্চলের সিলেট, সুনামগঞ্জ, কিশোরগঞ্জ ও ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলার বন্যা পরিস্থিতির উন্নতি হতে পারে। এ ছাড়া কুড়িগ্রাম, গাইবান্ধা, বগুড়া, সিরাজগঞ্জ, টাঙ্গাইল ও জামালপুর জেলার নিম্নাঞ্চলের বন্যা পরিস্থিতির উন্নতি হতে পারে। শরীয়তপুর ও মাদারীপুর জেলার নিম্নাঞ্চলে স্বল্পমেয়াদি বন্যা পরিস্থিতি সৃষ্টি হতে পারে।

গত ২৪ ঘণ্টায় ১০৯টি পর্যবেক্ষণাধীন পয়েন্টগুলোর মধ্যে বেড়েছে ২৬টির, হ্রাস পেয়েছে ৭৮টির, অপরিবর্তিত রয়েছে ৫টির এবং বিপদসীমার ওপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে ১০টিতে। বন্যা প্লাবিত জেলা ১১টি। সাত নদীর পানি বিপদসীমার ওপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে।

advertisement