advertisement
advertisement
advertisement
advertisement

করোনায় বেড়েছে গাঁজা সেবন

অনলাইন ডেস্ক
২৮ জুন ২০২২ ০৬:৫৯ পিএম | আপডেট: ২৮ জুন ২০২২ ০৬:৫৯ পিএম
ছবি : সংগৃহীত
advertisement

বিশ্বের সবচেয়ে বেশি ব্যবহৃত মাদকগুলোর একটি গাঁজা। বিভিন্ন দেশে গাঁজার বৈধতা প্রদান এবং মহামারির মধ্যে লকডাউনের কারণে বিশ্বজুড়েই বেড়েছে গাঁজা সেবনের পরিমাণ। জাতিসংঘ বলছে, অতিরিক্ত গাঁজা সেবনের কারণে বাড়ছে বিষন্নতা ও আত্মহত্যার ঝুঁকি। গত সোমবার জাতিসংঘের অফিস অন ড্রাগ অ্যান্ড ক্রাইমসের (ইউএনওডিসি) বার্ষিক প্রতিবেদনে এ তথ্য ওঠে আসে।

জার্মান সংবাদমাধ্যম ডয়চে ভেলে জানিয়েছে, ২০১২ সালে চিকিৎসা বহির্ভূত গাঁজা ব্যবহারের বৈধতা দেয় যুক্তরাষ্ট্রের ওয়াশিংটন ও কলোরাডো রাজ্য। পরে আরো কিছু রাজ্য তাদের পথ অনুসরণ করে। ২০১৩ সালে উরুগুয়ে এবং ২০১৮ সালে কানাডা গাঁজা বেঁচাকেনা ও সেবনের বৈধতা দেয়। অন্য কিছু দেশও এমন পদক্ষেপ নেয়। তবে প্রতিবেদনে মূলত এই তিন দেশের দিকেই নজর দিয়েছে ইউএনওডিসি।

advertisement

প্রতিবেদনে তারা বলেছে, বৈধতা দেওয়ায় গাঁজার ব্যবহার উর্ধ্বমুখী প্রবণতাকে ত্বরান্বিত করেছে। তবে তরুণদের মধ্যে গাঁজা সেবনের প্রবণতা খুব একটা বাড়েনি। তারা বরং আরো উচ্চ ক্ষমতার মাদকের দিকে বেশি ঝুঁকেছে।

এতে আরো বলা হয়, ২০২০ সালে বিশ্বের ২৮ কোটি ৪০ লাখ মানুষ বা পাঁচ দশমিক ছয় শতাংশ জনগোষ্ঠী হেরোইন, কোকেন, অ্যাম্ফেটামিনসের মতো অন্তত একটি মাদকে আসক্ত ছিল। এর মধ্যে গাঁজা সেবনকারীর সংখ্যা ছিল ২০ কোটি ৯০ লাখ। বলা হয়েছে, ২০২০ সালে লকডাউনে গাঁজা সেবনের প্রবণতা বেড়ে যায়। ওই বছর রেকর্ড পরিমাণ কোকেন উৎপাদিত হওয়ার তথ্য জানায় ইউএনওডিসি।

advertisement