advertisement
advertisement
advertisement
advertisement

দল পাচ্ছেন না মার্সেলো-ইস্কো

ক্রীড়া ডেস্ক
৬ আগস্ট ২০২২ ১২:০০ এএম | আপডেট: ৬ আগস্ট ২০২২ ১২:৫৩ এএম
advertisement

এই মৌসুমে নতুন কয়েকজন ফুটবলারকে দলে টেনেছে রিয়াল মাদ্রিদ। কয়েকজনের সঙ্গে করেছে চুক্তি নবায়ন। কিছু ফুটবলারকে ছেড়েও দিয়েছে তারা। সেই দলেরই দুজন তারকা ফুটবলার ইস্কো ও মার্সেলো। কিন্তু সান্তিয়াগো বার্নাব্যু ছেড়ে যাওয়ার পর একরকম ক্যারিয়ার বিপর্যয় নেমে এসেছে তাদের। দুজনের একজনকেও কেউ কিনছে না।

advertisement

স্প্যানিশ লা লিগার নতুন মৌসুম শুরু হতে এক সপ্তাহও বাকি নেই। কিন্তু ইস্কো-মার্সেলো দল পাচ্ছেন না। রিয়াল ছাড়ার পরপর মার্সেলোর প্রতি কয়েকটি ক্লাব আগ্রহ দেখালেও তা আর আস্থায় রূপ নেয়নি। ব্রাজিলিয়ান ডিফেন্ডারেরও কোথায় যাওয়া হয়নি। স্প্যানিশ মিডফিল্ডার ইস্কোর ব্যাপারটাও অনেকটা একই রকম।

খুব স্বাভাবিকভাবেই অনিশ্চিত একটা ভবিষ্যতের দিকে এগোচ্ছেন তারা। শোনা যাচ্ছিল সেভিয়া যেতে পারেন ইস্কো। সেখানে প্রধান কোচ হুলেন লোপেতেগুই নাকি তাকে খুব পছন্দ করেন। কারণ রিয়ালে কয়েক মাস থাকাকালীন ইস্কোকে খুব কাছ থেকেই দেখেছেন স্প্যানিশ কোচ। কিন্তু বাস্তবতা বড্ড কঠিন। আরেক সাবেক কোচ ম্যানুয়েল পেলেগ্রিনির সঙ্গেও কথা বলেছেন ইস্কো। কিন্তু তার প্রতি আগ্রহ দেখাননি রিয়াল বেটিস কোচ।

দল না পাওয়া ইস্কো কিছুদিন আগে নতুন এজেন্ট হিসেব জর্জ মেন্ডিসকে বেছে নিয়েছেন। মেন্ডিস আবার পর্তুগিজ সুপরাস্টার ক্রিস্টিয়ানো রোনালদোর এজেন্ট বটে। এক রোনালদোর জন্যই উপযুক্ত কোনো ক্লাবকে রাজি করাতে পারেননি পারেননি মেন্ডিস। তারওপর ইস্কোকে নিয়ে বাড়তি চাপেই আছেন এই এজেন্ট। ৩০ বছর বয়সী ইস্কোর ভবিষ্যৎ কোথায় গিয়ে দাঁড়ায় সেটাই এখন দেখার অপেক্ষা। গত মৌসুমে রিয়াল মাদ্রিদের হয়ে ১৭ ম্যাচ খেলে দুই গোল করেছেন ইস্কো। তার বাজার মূল্য নেমে গেছে সাড়ে সাত মিলিয়নের নিচে। অথচ চার বছর আগেও ইস্কোর বাজারদর ছিল ৮০ মিলিয়ন ইউরো! সময়ের ব্যবধান ও পারফরম্যান্সের গ্রাফ নিম্নগামী হওয়ায় ইস্কোর আজকের এই দশা। প্রায় একই অবস্থা মার্সেলোরও। ব্রাজিলিয়ান তারকার অবশ্য পছন্দসই দল না পাওয়ার অন্য কারণ আছে।

মার্সেলোর বয়স এখন ৩৪। রিয়াল মাদ্রিদের ইতিহাসে সর্বোচ্চ (২৫) শিরোপা জেতা খেলোয়াড় তিনি। কিন্তু বয়সের কারণে এই মৌসুমে তাকে ছেড়ে দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে স্প্যানিশ জায়ান্টরা। ফরাসি সংবাদমাধ্যম এল ইকুইপ অবশ্য দাবি করেছিল, বন্ধু রোনালদো নাজারিও তার ক্লাবে মার্সেলোকে নেবেন। ফরাসি ক্লাব অলিম্পিক লিওঁ-ও নাকি চেয়েছিল ব্রাজিলিয়ান লেফট-ব্যাককে।

কিন্তু মার্সেলোর একটা ঝামেলা আছে। তার চাহিদা অবশ্য অনেক। পারিশ্রমিক নিয়ে বনিবনা হচ্ছে না ক্লাবগুলোর সঙ্গে। ইতালিয়ান সিরি’এ লিগ চ্যাম্পিয়ন এসি মিলানের সঙ্গেও নাকি দরকষাকষি হয়েছিল তার। ওদিকে খবর বেরিয়েছে, স্বদেশি ক্লাব ফ্লুমিনেন্সে এবং তুর্কি ক্লাব ফেনারব্যাচ তার প্রতি আগ্রহ দেখিয়েছে।

advertisement