advertisement
advertisement
advertisement
advertisement

মদপানে ১১ জনের মৃত্যু, দৃষ্টি হারালেন অনেকে

অনলাইন ডেস্ক
৬ আগস্ট ২০২২ ০৫:১৪ পিএম | আপডেট: ৬ আগস্ট ২০২২ ০৫:১৪ পিএম
প্রতীকী ছবি
advertisement

ভারতের বিহার রাজ্যে মদপান নিষিদ্ধ। আর সে রাজ্যেই বিষাক্ত মদপানে মারা গেলেন ১১ জন। এ ছাড়া আরও ১২ জনের অবস্থা আশঙ্কাজনক। শুধু তাই নয়, বিষাক্ত মদপানে দৃষ্টি হারিয়েছেন অনেকে। গত বুধবার বিহারের সারন জেলায় বিষাক্ত মদপানের ঘটনা ঘটে। পরে বৃহস্পতিবার ও শুক্রবার মিলিয়ে ১১ জনের মৃত্যু হয়।

ভারতীয় সংবাদমাধ্যম সংবাদ প্রতিদিনের খবরে বলা হয়,  একটি হিন্দু রীতি অনুযায়ী শ্রাবণ মাসের নির্দিষ্ট তিথিতে স্থানীয় বাসিন্দারা মদ পান করে থাকেন। গত বুধবার সেই রীতি পালন করতে গিয়ে তারা এ মদপান করেন। ওই দিন সারন জেলার ফুলওয়ারিয়া পঞ্চায়েতের একদল মানুষ বিষাক্ত মদ পান করেন বলে মনে করা হচ্ছে।

advertisement

গত বৃহস্পতিবার প্রথমে বিষাক্ত মদপানে দুই ব্যক্তির মৃত্যুর কথা জানা যায়। একইসঙ্গে জানা গিয়েছিল, ঘটনায় অসুস্থ হয়েছেন অসংখ্য মানুষ। অসুস্থদের প্রথমে জেলা সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। পরে গুরুতর অসুস্থদের বিহারের রাজধানী পাটনার পিএমসিএইচ হাসপাতাল ভর্তি করা হয়েছে। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় আরও নয়জনের মৃত্যু হয়েছে।

আজ শনিবার প্রশাসনের তরফে জানানো হয়েছে, বর্তমানে পিএমসিএইচ হাসপাতাল ১২ জন গুরুতর অসুস্থ ব্যক্তির চিকিৎসা চলছে। এদিকে, এই ঘটনায় এখন পর্যন্ত পাঁচজনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। গ্রেপ্তার পাঁচ ব্যক্তি মদ তৈরি ও বিক্রি করতেন। এ ছাড়া স্থানীয় থানার এক পুলিশ কর্মকর্তাকেও গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

উল্লেখ্য, ২০১৬ সালের এপ্রিল মাসে রাজ্য মদ নিষিদ্ধ করেন বিহারের মুখ্যমন্ত্রী নীতীশ কুমার সরকার। যদিও বিহারে অবৈধ মদের কারবার রমরমা অবস্থা বলে দাবি বিরোধীদের। গত বছরের নভেম্বর থেকে এখন পর্যন্ত এ রাজ্যে বিষাক্ত মদপানে ৫০ জনের মৃত্যু হয়েছে।

advertisement