advertisement
advertisement
advertisement
advertisement

চবির মূল ফটকে তালা দিয়ে ছাত্রলীগের পদবঞ্চিতদের বিক্ষোভ

নিজস্ব প্রতিনিধি
১১ সেপ্টেম্বর ২০২২ ০৪:৫৬ পিএম | আপডেট: ১১ সেপ্টেম্বর ২০২২ ০৪:৫৬ পিএম
পদের দাবিতে চবির মূল ফটকে ছাত্রলীগের পদবঞ্চিতদের তালা। ছবি: সংগৃহীত
advertisement

চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় (চবি) শাখা ছাত্রলীগের কমিটিতে যোগ্যদের মূল্যায়ন করে কমিটি বর্ধিত করার দাবিতে বিক্ষোভ করছে পদবঞ্চিতরা। এ সময় বিশ্ববিদ্যালয়ের মূল ফটক বন্ধ করে দেওয়া হলে শহরগামী শিক্ষক এবং শিক্ষার্থীদের বাস আটকা পড়ে। আজ রোববার বিকেল ৩টায় বিশ্ববিদ্যালয়ের জিরো পয়েন্টে মূল ফটকের সামনে এ বিক্ষোভ শুরু হয়।

ছাত্রলীগের ছয়টি উপ-গ্রুপের শতাধিক নেতাকর্মী অংশ নিয়ে এ বিক্ষোভ শুরু করেন। বিক্ষোভে সাবেক সিটি মেয়র ও নগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আজম নাছির উদ্দীনের অনুসারী ভিএক্স, বাংলার মুখ, রেড সিগনাল, কনকর্ড, এপিটাফ ও উল্কার নেতাকর্মীদের অংশ নিতে দেখা যায়।

advertisement 3

বিক্ষোভে তারা পদবঞ্চিত ত্যাগী ও পরিশ্রমী কর্মীদের মূল্যায়ন করে কমিটিতে অর্ন্তভুক্তকরণ, কমিটিতে স্থান পাওয়া নেতাদের যোগ্যতা অনুসারে পদগুলোর পুনঃমূল্যায়ন ও কমিটিতে পদপ্রাপ্ত বিবাহিত, চাকরিজীবী ও দীর্ঘদিন রাজনীতিতে নিষ্ক্রিয় ব্যক্তিদের বিরুদ্ধে সাংগঠনিক ব্যবস্থা গ্রহণের দাবি জানান।

advertisement 4

শাখা ছাত্রলীগের সহ-সভাপতি রকিবুল হাসান দিনার বলেন, ‘গত ৩১ জুলাই রাতে চবি ছাত্রলীগের পূর্ণাঙ্গ কমিটি ঘোষণা করা হয়। দীর্ঘদিন সময় নিয়ে ঘোষিত কমিটি ত্যাগী নেতাকর্মীদের মন জয় করতে পারেনি। উল্টো নিষ্ক্রিয়, জামায়াত-বিএনপি পরিবারের ছেলেদের স্থান দিয়ে কমিটিকে প্রশ্নবিদ্ধ করা হয়েছে। এর প্রতিবাদে ৩ দফা দাবিতে আমরা নিয়মিত কর্মসূচি পালন করছি। সাংগঠনিক ও সুশৃঙ্খল আন্দোলনের মাধ্যমে আমরা কেন্দ্রের দৃষ্টি আকর্ষণের চেষ্টা করছি। তবে দাবি আদায় না হওয়ায় নেতাকর্মীরা মূল ফটকে তালা দিয়ে আন্দোলনে নেমেছে।’

প্রসঙ্গত, গত ৩১ জুলাই প্রায় ৬ বছর পর চবি ছাত্রলীগের পূর্ণাঙ্গ কমিটি ঘোষণা করা হয়। এরপর গত ১০ আগস্ট সংবাদ সম্মেলনের মাধ্যমে শাখা ছাত্রলীগের সভাপতি রেজাউল হক রুবেল ও সাধারণ সম্পাদক ইকবাল হোসেন টিপুর প্রতি অনাস্থা জানান ৯৪ জন পদধারী নেতা। পাশাপাশি আগস্টের পর থেকে আন্দোলনের ঘোষণা দেন তারা।

advertisement