advertisement
advertisement
advertisement
advertisement

নতুন প্রযুক্তি নিয়ে অ্যাপলের পণ্য

অনলাইন ডেস্ক
১২ সেপ্টেম্বর ২০২২ ০২:৩৩ পিএম | আপডেট: ১২ সেপ্টেম্বর ২০২২ ০২:৩৩ পিএম
advertisement

যুক্তরাষ্ট্রের ক্যালিফোর্নিয়ার অ্যাপল পার্কে স্টিভ জবস থিয়েটারে জমকালো আয়োজনে একগুচ্ছ নতুন পণ্য উন্মোচন করেছে স্মার্ট প্রযুক্তি জায়ান্ট অ্যাপল। গত ৭ সেপ্টেম্বর ‘ফারআউট’ অনুষ্ঠানে দর্শকের সরাসরি উপস্থিতিতে নতুন পণ্য ছাড়ার ঘোষণা দেয় প্রতিষ্ঠানটি।

ওই অনুষ্ঠানে আইফোনের চারটি সংস্করণ- আইফোন-১৪, আইফোন-১৪ প্লাস, আইফোন-১৪ প্রো, ১৪ প্রো ম্যাক্সসহ উন্মোচন হয় অ্যাপলের সর্বশেষ সংস্করণের স্মার্টওয়াচের মতো নতুন বেশ কয়েকটি পণ্য। জরুরি স্যাটেলাইট সংযোগ এবং গাড়ি দুর্ঘটনা শনাক্তকরণ প্রযুক্তিসহ নতুন আইফোন সিরিজের স্মার্টফোনের পাশাপাশি এই ইভেন্টে সাড়া ফেলেছে অ্যাপলের সবশেষ মডেলের স্মার্টওয়াচগুলো। বিশেষ করে অ্যাপল ওয়াচ সিরিজ ৮ এবং অ্যাপল ওয়াচ আলট্রা নামক ‘এক্সট্রিম স্পোর্টসে’ সংযুক্ত করা হয়েছে এমন কিছু প্রযুক্তি, যা চমকে দিয়েছে প্রযুক্তিপ্রেমীদের।

advertisement 3

আইফোন-১৪ সিরিজ: আইফোন-১৪ দুটি আকারে প্রকাশ করছে কোম্পানিটি- আইফোন-১৪ ও আইফোন-১৪ প্লাস নামে। নতুন হ্যান্ডসেটগুলো স্যাটেলাইটের মাধ্যমে সাহায্যের জন্য জরুরি কল করতে সক্ষম। ফোনটি নিকটবর্তী স্যাটেলাইটগুলোর অবস্থান প্রদর্শন করতে পারবে। এছাড়া কীভাবে ডিভাইসটি স্যাটেলাইটের দিকে তাক করা যায়, সেটাও দেখাবে। পনেরো সেকেন্ড থেকে কয়েক মিনিটের মধ্যে এটি স্যাটেলাইটে বার্তা পাঠাতে পারবে, যা স্মার্টফোনে একটি যুগান্তকারী সংযোজন বলে মনে করেন বিশেষজ্ঞরা। দ্রুত চলমান কোনো বস্তুর ছবি তুলতে সক্ষম এর ১২ মেগাপিক্সেল ক্যামেরা। কোম্পানিটির দাবি, কম আলোতে ছবি তোলার ক্ষেত্রে এই ক্যামেরা আগের চেয়ে ৪৯ শতাংশ ভালো কাজ করবে। আইফোন-১৪-তে রয়েছে ৬.১ ইঞ্চি পর্দা এবং আইফোন-১৪ প্লাসে থাকছে ৬.৭ ইঞ্চি। আইফোন-১৪ ডিভাইসের দাম ৭৯৯ ডলার।

advertisement 4

আইফোন-১৪ প্রো ও আইফোন-১৪ প্রো ম্যাক্স নকশায় লক্ষণীয় পরিবর্তন এনেছে প্রতিষ্ঠানটি। ডায়নামিক আইল্যান্ড নামে নতুন ফিচার দিয়ে আইফোনের কালো খাঁজটি সরিয়ে ফেলা হয়েছে। আরেকটি বড় পরিবর্তন হলো- হ্যান্ডসেটটি সব সময় চালু থাকতে পারে। যখন ফোন ব্যবহার করা হয় না, তখন এর স্ক্রিনের আলো ম্লান হয়ে যায় এবং রিফ্রেশ রেট কম হয়। কালো, রুপালি, সোনালি ও গাঢ় বেগুনি রঙে পাওয়া যাবে। আইফোন-১৪ প্রোর দাম ৯৯৯ ডলার।

অ্যাপল ওয়াচ ৮: গাড়ি দুর্ঘটনা শনাক্তকরণ, নারীদের ডিম্বাণু তৈরির চক্রের সময়ে শরীরের তাপমাত্রা পরিমাপ করার সেন্সর এবং লো পাওয়ার মোডের মতো গুরুত্বপূর্ণ ও জরুরি ফিচার যুক্ত করা হয়েছে অ্যাপল ওয়াচ সিরিজ এইটে। যুক্তরাষ্ট্রে গর্ভপাত আইনে পরিবর্তন আনার পর থেকে মাসিকের চক্র ট্র্যাকার সম্পর্কে সেখানে সতর্কতা তৈরি হয়েছে। অ্যাপল জানিয়েছে, তাদের ডিভাইসগুলোর ডাটা এনক্রিপ্ট করা হবে এবং শুধু একটি পাস কোড বা বায়োমেট্রিক্সের মাধ্যমে সেগুলো দেখা যাবে। অ্যাপলের চিফ অপারেটিং অফিসার জেফ উইলিয়ামস বলেছেন, আমরা নারীদের স্বাস্থ্যের প্রতি আমাদের প্রতিশ্রুতি আরও এগিয়ে নিয়ে যাচ্ছি। অ্যাপল বলেছে, নারীর শরীরে ডিম্বাণু তৈরির চক্র এবং ডিম্বস্ফোটন সম্পর্কে নতুন স্বয়ংক্রিয় নোটিফিকেশন যারা গর্ভধারণের চেষ্টা করছেন, তাদের সাহায্যে আসবে। ফিচারটি সক্রিয় থাকলে নতুন ঘড়িটি সারারাত ধরে প্রতি পাঁচ সেকেন্ডে শরীরের তাপমাত্রা নিরীক্ষণ এবং শরীরের ছোটখাটো পরিবর্তন শনাক্ত করতে পারে, যা ডিম্বস্ফোটন সম্পর্কে সংকেত হতে পারে।

এর আরেকটি বৈশিষ্ট্য হলো গাড়ি দুর্ঘটনা শনাক্তকরণ। একটি সেন্সর ব্যবহার করে ঘড়িটি গুরুতর দুর্ঘটনা শনাক্ত করতে সক্ষম। ঘড়িটি দুর্ঘটনার সময় ব্যবহারকারীর সঠিক অবস্থান প্রদান করে এবং ব্যক্তির জরুরি কোনো নম্বরে নোটিফিকেশন পাঠিয়ে সে ব্যাপারে অবহিত করতে পারবে। সিরিজ এইট ঘড়িতে এখন আইফোনের মতো লো পাওয়ার মোডও রয়েছে। অ্যাপল ওয়াচ সিরিজ এইটের জিপিএস ভার্সন পাওয়া যাবে ৩৯৯ ডলারে। আর জিপিএস ও সেলুলার ভার্সন পাওয়া যাবে ৪৯৯ ডলারে। এর জিপিএস ভার্সন পড়বে ৪২৯ ডলার, আর সেলুলার ভার্সনের দাম পড়বে ৫২৯ ডলার। ১৬ সেপ্টেম্বর থেকে বাজারে পাওয়া যাবে এটি। প্রি অর্ডারের ব্যবস্থাও থাকছে।

অ্যাপল আলট্রা ওয়াচ: যারা অ্যাডভেঞ্চারপ্রিয় কিংবা যাদের আউটডোর অ্যাক্টিভিটি বেশি থাকে, তাঁদের জন্য প্রয়োজনীয় বিভিন্ন ফিচার সংযুক্ত থাকছে অ্যাপল ওয়াচ আলট্রায়। এই ঘড়ি পানি, ধুলো এবং ফাটলপ্রতিরোধী। সাতার ও স্কুবা ডাইভারদের নিরাপত্তা দিতে এতে যোগ করা হয়েছে ইমার্জেন্সি সাইরেন সিস্টেম। অ্যাপল ওয়াচ এইট সিরিজের প্রায় সব ফিচারই যুক্ত থাকছে এতে। বড় ডিসপ্লে, অতিরিক্ত স্পিকার ও মাইক্রোফোন থাকছে এতে। একবার চার্জে ৩৬ ঘণ্টা পর্যন্ত ব্যাটারি লাইফ থাকে এবং এর ৬০ ঘণ্টা পর্যন্ত বর্ধিত ব্যাটারি লাইফ পাওয়া যাবে। একটি আলট্রা-ট্রায়াথলন সম্পন্ন করার জন্য যথেষ্ট শক্তি এতে রয়েছে বলে অ্যাপল প্রতিশ্রুতি দিয়েছে। আলট্রা-ট্রায়াথলন প্রতিযোগিতায় সাঁতার কাটা, সাইকেল চালানো এবং দৌড়ানো অন্তর্ভুক্ত। খেলাধুলার কথা মাথায় রেখে এটি করা হয়েছে। পণ্যটি বাজারে আসছে ২৩ সেপ্টেম্বর থেকে। এর দাম শুরু হবে ৭৯৯ ডলারে। ওয়াচ আলট্রার সবচেয়ে বড় ফিচার হলো এর নির্ভুল জিপিএস প্রযুক্তি। উঁচু ভবন ও উঁচু গাছপালা ঘেরা জঙ্গলে, যেখানে সাধারণত বাধাগ্রস্ত হয় জিপিএস, সেখানেও ব্যবহারকারীদের জিপিএস সাপোর্ট দেবে অ্যাপল ওয়াচ। দাম ৭৯৯ ডলার।

এয়ারপডস: অ্যাপল আইফোন ওয়াচের পাশাপাশি নতুন এয়ারপডও উন্মোচন করেছে। আগের ভার্সনের তুলনা করলে এতে যুক্ত হয়েছে আরও উন্নত ফিচার। এয়ার পডস প্রো তার আগের মডেলগুলোর তুলনায় হারিয়ে গেলে খুঁজে পাওয়া সহজ। এক জোড়া এয়ারফোনের একটি হারিয়ে গেলে অন্যটি দিয়ে তা খুঁজে বের করার জন্য নতুন ব্যবস্থা যোগ করা হয়েছে। এ ক্ষেত্রে এয়ারফোন তার কেস থেকে পড়ে গেলে শব্দ বেজে ওঠে। এয়ারফোনের কেসটিতেও এই বাজনার ব্যবস্থা রয়েছে। এয়ারপডস প্রোর দাম ২৪৯ ডলার।

advertisement