advertisement
advertisement
advertisement
advertisement

গুগল থেকে আচমকাই অ্যাকাউন্টে ঢুকল ২ কোটি টাকা!

অনলাইন ডেস্ক
১৮ সেপ্টেম্বর ২০২২ ১১:৫৪ এএম | আপডেট: ১৮ সেপ্টেম্বর ২০২২ ১২:১৪ পিএম
আচমকাই গুগ্‌‌ল থেকে অ্যাকাউন্টে ঢুকল ২ কোটি টাকা!
advertisement

এ যেন বিনা মেঘে বজ্রপাত! হঠাৎই গুগল থেকে কয়েক কোটি টাকা ঢুকেছে আমেরিকার এক ব্যক্তির অ্যাকাউন্টে। টাকার অঙ্কটা প্রায় ২ লাখ ৫০ হাজার ডলার, যা বাংলাদেশি মুদ্রায় ২ কোটি ৩৪ লাখ টাকার মতো। কিন্তু হঠাৎ গুগল কেন এত টাকা পাঠাল, তা কিছুতেই আন্দাজ করতে পারছিলেন না ওই ব্যক্তি।

আমেরিকার ওমাহা প্রদেশের স্যাম কারি নামের ওই ব্যক্তি একসঙ্গে এত টাকা পেয়ে খানিকটা ঘাবড়েও গিয়েছিলেন। গত বুধবার টুইট করে তিনি জানান, আচমকা এতগুলো টাকা পেয়ে যাওয়ার কথা।

advertisement 3

তবে এত টাকা পেয়েও উল্লসিত হননি মার্কিন এই নাগরিক; বরং চিন্তা বেড়ে গেছে তার। তাই তিন সপ্তাহ পেরিয়ে গেলেও এক পয়সা খরচও করেননি স্যাম।

advertisement 4

টুইটারে তিনি লিখেছেন, ‘তিন সপ্তাহেরও বেশি হয়ে গেল, গুগল আমাকে ২ লাখ ৫০ হাজার মার্কিন ডলার পাঠিয়েছে। কোনো কি উপায় রয়েছে গুগলের সঙ্গে যোগাযোগ করার?’ সেই সঙ্গে তিনিও এ-ও লেখেন যে, যদি টাকা ফেরত চান, তাতে কোনো সমস্যা নেই।

নিউজউইকের প্রতিবেদন অনুযায়ী, স্যাম ‘বাগ বাউন্টি হান্টার’ হিসেবে কাজ করেন। গুগ্‌‌লের মতো বিভিন্ন সংস্থায় সফটওয়্যারে নিরাপত্তা সংক্রান্ত ফাঁকফোকর থাকলে তা খুঁজে বার করার কাজ করেন স্যাম। কিন্তু তার এই অপ্রত্যাশিতভাবে অর্থ প্রাপ্তির নেপথ্যে এই কাজের কোনো সংযোগ নেই বলেই জানিয়েছেন ওই ব্যক্তি।

এক সাক্ষাৎকারে স্যাম জানান, তিনি ওই অর্থ তার কাছেই গচ্ছিত রাখছেন। কারণ যদি গুগ্‌‌ল ফেরত চায়, তা হলে তিনি ফিরিয়ে দেবেন। তার কথায়, গুগল যদি তার টুইট-বার্তায় সাড়া না দেয়, তা হলে এই অর্থ অন্য একটি অ্যাকাউন্টে রাখবেন, যাতে এ জন্য কর দিতে না হয়।

এই কাণ্ড প্রকাশ্যে আসার পরই নড়েচড়ে বসে গুগল। আদতে ভুলবশত যে ওই ব্যক্তির অ্যাকাউন্টে তারা টাকা পাঠিয়েছেন, সে কথা জানিয়েছেন গুগল কর্তৃপক্ষ।

সংস্থার এক মুখপাত্র বলেছেন, ‘ভুলবশত আমরা ওই ব্যক্তির অ্যাকাউন্টে অর্থ পাঠিয়েছি। ওই ব্যক্তিকে সাধুবাদ জানাই যে, তিনি দ্রুত বিষয়টি উত্থাপন করেছেন। আমরা ভুল শুধরে নেব।’ স্যামের থেকে টাকা যে ফিরিয়ে নেওয়া হবে, সে কথাও জানিয়েছে গুগল।

advertisement