advertisement
advertisement
advertisement
advertisement

জাপানের আশ্চর্যজনক উন্নয়ন থেকে বাংলাদেশের শেখার আছে: সংস্কৃতি প্রতিমন্ত্রী

কূটনৈতিক প্রতিবেদক
২২ সেপ্টেম্বর ২০২২ ০৯:৪৮ পিএম | আপডেট: ২২ সেপ্টেম্বর ২০২২ ১০:০৫ পিএম
সংস্কৃতি বিষয়ক প্রতিমন্ত্রী কে এম খালিদ। ছবি: আমাদের সময়
advertisement

সংস্কৃতি বিষয়ক প্রতিমন্ত্রী কে এম খালিদ বলেছেন, ‘আজকে যে বইয়ের মোড়ক উম্মোচন হলো সেটি বাংলাদেশ-জাপান দুই দেশের বন্ধুত্বপূর্ণ সম্পর্কের বর্তমান ও ভবিষ্যতের দিক নির্দেশনার ওপর জোর দিয়েছে। জাপানের আশ্চর্যজনক উন্নয়ন থেকে বাংলাদেশ শিখতে পারে, বিশেষ করে দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের পর ধ্বংসস্তূপ থেকে কীভাবে দেশটি উন্নতি করেছিল।’

সংস্কৃতি প্রতিমন্ত্রী গতকাল বুধবার রাতে ঢাকার জাপান দূতাবাসে আয়োজিত ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের জাপানিজ স্টাডিজ বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক মো. জাহাঙ্গীর আলম রচিত ‘বাংলাদেশ-জাপান ডিপ্লোমেটিক রিলেশন (১৯৭২-২০২২), এ নিউ প্যারাডাইম অব স্ট্রাটেজিক পার্টনারশিপ’ শীর্ষক বইয়ের মোড়ক উম্মোচন অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এ কথা বলেন।

advertisement 3

স্বাগত বক্তব্যে বাংলাদেশে নিযুক্ত জাপানের রাষ্ট্রদূত ইতো নাওকি উল্লেখ করেন, এই বই ভবিষ্যত একাডেমিয়ায় অত্যন্ত প্রভাবশালী ভূমিকা রাখবে, বিশেষত জাপান-বাংলাদেশ সম্পর্কের ক্ষেত্রে। তিনি এই বই লেখার জন্য লেখককে অভিনন্দন এবং কৃতজ্ঞতা জ্ঞাপন করেন। 

advertisement 4

মোড়ক উম্মোচন অনুষ্ঠানের প্রধান আলোচক বাংলাদেশ সরকারি কর্ম কমিশনের সদস্য ও ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের আন্তর্জাতিক সম্পর্ক বিভাগের অধ্যাপক ড. দেলোয়ার হোসেন বলেন, বইটিতে রাষ্ট্রবিজ্ঞান, আন্তর্জাতিক সম্পর্ক, অঞ্চল অধ্যায়ন, বিনিয়োগ ও উন্নয়ন অধ্যায়নসহ সমসাময়িক বিষয়গুলোকে অন্তভূক্ত করা হয়েছে। 

বিশেষ অতিথির বক্তব্যে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রো-ভাইস চ্যান্সেলর অধ্যাপক ড. এ এস এম মাকসুদ কামাল অভিমত ব্যক্ত করেন যে, জাপান যেহেতু বাংলাদেশের সর্ববৃহৎ দ্বিপাক্ষিক উন্নয়ন সহযোগী এবং বাংলাদেশের মাতারবাড়ি গভীর সমুদ্র বন্দর, হজরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের টার্মিনাল, ঢাকার এমআরটি লাইনসহ বেশ কয়েকটি উল্লেখযোগ্য মেগা প্রজেক্ট বাস্তবায়নে সহায়তা করছে যা বাংলাদেশের উন্নয়নের স্বপ্নযাত্রাকে ত্বরান্বিত করেছে, সেহেতু এই বই একটি বড় মাইলফলক হিসেবে বিবেচিত হবে।’

advertisement