advertisement
advertisement
advertisement
advertisement

বঙ্গবন্ধুর বাংলাদেশে সাম্প্রদায়িক গোষ্ঠীর ঠাঁই নেই: চৌধুরী বাবর

চট্টগ্রাম ব্যুরো
২৬ সেপ্টেম্বর ২০২২ ০৯:০৪ পিএম | আপডেট: ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২২ ০৯:০৬ পিএম
হেলাল আকবর চৌধুরী বাবর। পুরোনো ছবি
advertisement

আসন্ন শারদীয় দুর্গাপূজাকে সামনে রেখে হিন্দুদের মন্দিরে সাম্প্রদায়িক গোষ্ঠী হামলা চালালে তাদের ঠাঁই বঙ্গবন্ধুর অসাম্প্রদায়িক বাংলাদেশে হবে না বলে সতর্ক  করেছেন আওয়ামী লীগ নেতা হেলাল আকবর চৌধুরী বাবর। আসন্ন শারদীয় দুর্গাপূজাকে সামনে রেখে আজ সোমবার বিকেলে চট্টগ্রাম নগরীর ২২ নং এনায়েত বাজার ওয়ার্ডের পূজামণ্ডপ কমিটিসমূহের সঙ্গে এক মতবিনিময় সভায় তিনি এ কথা বলেন। এ সময় তিনি প্রতিটি পাড়া মহল্লায় সম্প্রীতি কমিটি গঠনের আহ্বান জানান।

আজ নগরীর নন্দনকানন ডিসি হিলের সম্মুখে ২২নং এনায়েত বাজার ওয়ার্ড কাউন্সিলর সলিমুল্লাহ বাচ্চুর সভাপতিত্বে এবং সাবেক ছাত্রনেতা শিবু প্রসাদ চৌধুরীর সঞ্চালনায় আয়োজিত মতবিনিময় সভায় বক্তব্য দেন সংরক্ষিত কাউন্সিলর নিলু নাগ, অ্যাডভোকেট শ্রীপতি কান্তি পাল, মহানগর পূজা কমিটির সদস্য বিলু ঘোষ, সরোয়ার জাহান সারু, সুজিত ঘোষ প্রমুখ। 

advertisement

কেন্দ্রীয় যুবলীগের সাবেক উপ-অর্থ সম্পাদক হেলাল আকবর চৌধুরী বাবর বলেন, ‘যারা ধর্মের নামে মন্দির, মসজিদ, গির্জায় সাম্প্রদায়িক হামলা করে তারা সমাজ, দেশ ও ধর্মের শত্রু। যারা এই ধরনের হামলা করে সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি বিনষ্ট করে তাদের জায়গা জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের অসাম্প্রদায়িক বাংলাদেশে হবে না।’

advertisement 4

তিনি বলেন, ‘বিএনপি-জামায়াত চক্র দেশকে অস্থিতিশীল করার জন্য বারংবার সাম্প্রদায়িক হামলা চালিয়েছে হিন্দুদের বাড়ি-ঘরে, মন্দিরে ভাংচুর চালিয়েছে। তাদের প্রতি সাবধান করে বলতে চাই- যদি কোনো প্রকার সাম্প্রদায়িক হামলা চালিয়ে সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি নষ্ট করার চেষ্টা করা হয় তবে সব শ্রেণি-পেশার মানুষদের সঙ্গে নিয়ে দাঁতভাঙা জবাব দেওয়া হবে।’

হেলাল আকবর চৌধুরী বাবর আসন্ন দুর্গাপূজাকে সামনে রেখে প্রতিটি পাড়া-মহল্লায় সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি কমিটি গঠন করার মাধ্যমে পূজামণ্ডপে প্রশাসনের পাশাপাশি স্বাধীনতার স্বপক্ষের শক্তিকে পাহারাদারের ভূমিকায় অবতীর্ণ হতে আহ্বান জানান।

মতবিনিময় সভায় এনায়েত বাজার ওয়ার্ডের ১২টি পূজামণ্ডপ উদ্‌যাপন কমিটির সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকসহ বিভিন্ন পর্যায়ের সনাতন সম্প্রদায়ের নেতারা উপস্থিত ছিলেন।

advertisement