advertisement
advertisement
advertisement
advertisement

কাবাডি খেলা নিয়ে ৩ গ্রামের সংঘর্ষ

তাহিরপুর (সুনামগঞ্জ) প্রতিনিধি
৩০ সেপ্টেম্বর ২০২২ ০৯:৩৯ পিএম | আপডেট: ৩০ সেপ্টেম্বর ২০২২ ০৯:৩৯ পিএম
প্রতীকী ছবি
advertisement

সুনামগঞ্জের তাহিরপুর উপজেলার কাবাডি খেলা নিয়ে তিন গ্রামের সংঘর্ষে শিশুসহ অর্ধশত মানুষ আহত হয়েছেন। গুরুত্বর আহতদের মধ্যে দুপক্ষের ৯ জনকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স ভর্তি করা হয়েছে। বাকিদের প্রাথমিক চিকিৎসা দেওয়া হয়েছে।

আজ শুক্রবার বিকাল ৫ টায় উপজেলার দক্ষিণ শ্রীপুর ইউনিয়ন সোলেমানপুর মাদ্রাসা মাঠে পাঠাবুকা ও সোলেমানপুর গ্রাম বনাম নয়নগর গ্রামের মধ্যে খেলা হয়।

advertisement

প্রত্যক্ষদর্শী ও স্থানীয় এলাকাবাসী জানায়, উপজেলার দক্ষিণ শ্রীপুর ইউনিয়ন সোলেমানপুর মাদ্রাসা মাঠে বিকেল তিনটায় শুরু হয় খেলা। ভালভাবেই চলছিল খেলা। কিন্তু শেষ পর্যায়ে খেলার নিয়ম না মানায় নয়নগর গ্রামের এক লোক পাঠাবুকা গ্রামের এমরান হোসেনের গায়ে হাত তুলে। এ নিয়ে উত্তেজনা বিরাজ শুরু হলে একপর্যায়ে তিন গ্রামের মানুষ সংঘর্ষে লিপ্ত হয়।
এ সময় শিশুসহ অর্ধশতাধিক মানুষ আহত হয়। স্থানীয় এলাকাবাসী গুরুত্বর আহতের উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স নিয়ে আসে। এরমধ্যে রুহুল আমিন(৩৫), সাজিকুল নিয়া(৩২), নজির হোসেন(২৫), আক্তার হোসেন(২২), রকিব মিয়া(১৮), সাইদুল মিয়া(৩০), জামিরুল (২৫), রায়হান মিয়া(২৫), আনোয়ার মিয়া(১৬), হিরন মিয়া(১৩), রবিন মিয়া(২২), সোহান মিয়া(৮), হুমায়ুন ফরিদ(১০), মোজাহিদ (২৪) ও আসাদুল মিয়া(৩৯)।

advertisement 4

তাহিরপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সৈয়দ ইফতেখার হোসেন কাবাডি খেলা নিয়ে সংঘর্ষের ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, এই বিষয়ে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নেওয়া হচ্ছে। তবে সংঘর্ষের ঘটনার এখনো লিখিতভাবে কেউ কোনো অভিযোগ করেনি।

advertisement