advertisement
advertisement
advertisement
advertisement

টুইটারে কর্মী ছাঁটাইয়ের হিড়িক, বন্ধ অফিস

অনলাইন ডেস্ক
৫ নভেম্বর ২০২২ ১১:৫৬ এএম | আপডেট: ৫ নভেম্বর ২০২২ ১২:৩৪ পিএম
ইলন মাস্ক।
advertisement

আচমকাই সাময়িকভাবে অফিস বন্ধ করে দিল টুইটার। কর্মীদের ই-মেইল করে বলে দেওয়া হয়েছে আপনাদের ছাঁটাই করা হচ্ছে কি না তা পরে জানানো হচ্ছে। এদিকে টুইটারে নতুন কর্ণধার ইলন মাস্ক। তিনি কোম্পানির দায়িত্ব নেওয়ার পরেই কিছুটা অনিশ্চয়তা তৈরি হয়েছে বলে দাবি করা হচ্ছে।

টুইটার কর্তৃপক্ষ জানায়, গতকাল শুক্রবার আনুষ্ঠানিকভাবে কর্মী ছাঁটাইয়ের প্রক্রিয়া শুরু করেছে। ই-মেইলের মাধ্যমে ছাঁটাইয়ের চূড়ান্ত তালিকা কর্মীদের জানিয়ে দেওয়া হবে। টুইটারকে স্বাভাবিক পথে নিয়ে যেতে তারা বিশ্বব্যাপী কর্মী ছাটাইয়ের মতো কঠিন প্রক্রিয়া অবলম্বন করেছেন।

advertisement

প্রতিষ্ঠানটি আরও জানায়, যাদের ছাঁটাই করা হয়নি তারা তাদের কর্মক্ষেত্রে ব্যবহৃত মেইলে বার্তা পাবেন। যাদের ছাঁটাই করা হয়েছে, তারা তাদের ব্যক্তিগত মেইলে পরবর্তী করণীয় সংক্রান্ত বার্তা পাবেন।

advertisement 4

এদিকে টুইটারের নতুন পরিকল্পনা সম্পর্কে সংবাদ সংস্থা রয়টার্স সূত্র থেকে জানা যায়, ইলন মাস্ক বর্তমানে খরচ বাঁচাতে চাইছেন। তিনি বিশ্বের ধনীতম ব্যক্তি। তিনি চাইছেন ৩ হাজার ৭০০ টুইটার স্টাফকে ছাঁটাই করতে। সব মিলিয়ে প্রায় অর্ধেক কর্মীকে তিনি ছাঁটাই করার পক্ষে। তিনি খরচে কাটছাঁট করতে চাইছেন। নতুন একটি কর্মসংস্কৃতি আনতে চাইছেন টুইটারে। আর তার জেরেই এই সিদ্ধান্ত।

তবে এ নিয়ে কোনো মন্তব্য করেনি টুইটার। এদিকে টুইটার কর্মীরা ইতিমধ্যেই এই কর্মী ছাঁটাই নিয়ে তাদের হতাশার কথা সোশ্যাল মিডিয়ায় বলতে শুরু করেছেন। #OneTeam লিখে তারাও ঝাঁপিয়ে পড়েছেন সোশ্যাল মিডিয়ায়।

টুইটারের মালিক হিসেবে মাস্কের প্রথম সপ্তাহটি বিশৃঙ্খলা ও অনিশ্চয়তার মধ্য দিয়ে গেছে। কর্মীদের দাবি, চূড়ান্ত সিদ্ধান্তের বিষয়ে নিশ্চিত হতে তাদের গণমাধ্যমে প্রচারিত সংবাদ, ব্যক্তিগত ম্যাসেজ গ্রুপ ও বেনামী বিভিন্ন সংস্থার ওপর নির্ভর করতে হয়েছে। 

advertisement