advertisement
advertisement
advertisement
advertisement

সা ক্ষাৎকা র
উৎসব ও নতুন প্রযোজনা সামনে রেখে এবারের আয়োজন

অপূর্ব কুমার কুন্ডু
২৪ নভেম্বর ২০২২ ১২:০০ এএম | আপডেট: ২৪ নভেম্বর ২০২২ ১০:১৯ এএম
advertisement

চট্টগ্রাম শিল্পকলা একাডেমির মিলনায়তনে ৭ দেশের ১২টি বিখ্যাত নাট্যপ্রযোজনা নিয়ে চলছে ‘নান্দীমুখ আন্তর্জাতিক নাট্যোৎসব’। উদ্বোধনী অনুষ্ঠান আয়োজন, দেশ-বিদেশের নাটকের মঞ্চায়ন, বিষয়ভিত্তিক সেমিনারে প্রবন্ধ উপস্থাপন নাট্যকর্মীদের নিয়ে কর্মশালাভিত্তিক প্রশিক্ষণ, আন্তর্জাতিক নাট্যব্যক্তিত্বদের তত্ত্বাবধানে ডিরেক্টরিয়াল মাস্টার্স ক্লাস পরিচালনাসহ উৎসবের সামগ্রিক দিক নিয়ে কথা বলেছেন নান্দীমুখ নাট্যদলের দলপ্রধান, নির্দেশক, নাট্যকার ও অভিনেতা অভিজিৎ সেনগুপ্ত। সাক্ষাৎকার নিয়েছেন- অপূর্ব কুমার কুন্ডু

উৎসবের উদ্বোধনী আয়োজন কেমন হলো?

advertisement

চিরাচরিতভাবে উৎসবের একটা উদ্বোধনী অনুষ্ঠান থাকে। আমরাও সেই ধারাবাহিকতায় একটা অয়োজন করেছি। উৎসবের প্রধান অতিথি ছিলেন সমাজবিজ্ঞানী ও আমাদের বাতিঘর ড. অনুপম সেন। উদ্বোধন করেন বাংলাদেশ গ্রুপ থিয়েটার ফেডারেশানের চেয়ারম্যান ও শিল্পকলা একাডেমির মহাপরিচালক লিয়াকত আলী লাকী। বিশেষ অতিথি ছিলেন মঞ্চসারথি আতাউর রহমান, ভারতীয় দূতাবাসের সহকারী হাইকমিশনার ড. রাজিব রঞ্জন ও বিশিষ্ট নাট্যগবেষক আশিস গোস্বামী।

advertisement 4

আমন্ত্রিত নাটকগুলোর বিষয়ে সংক্ষেপে বলুন।

এবারের উৎসবে আমরা তিনটি মহাদেশ থেকে সাতটি দেশের ১২টি নাটক নিয়ে উৎসবকে সাজিয়েছি। নাটকগুলোর ক্ষেত্রে আমরা বিষয়বস্তুকে প্রাধান্য দেওয়ার চেষ্টা করেছি। আশা করি, নাটকগুলো দর্শকদের ভালো লাগবে।

নাটক নির্বাচন এবং আমাদের দেশে আমন্ত্রণ করার পথপরিক্রমা কেমন?

নাটক নির্বাচনের ক্ষেত্রে আমরা দলগুলোর কাছে তাদের প্রযোজনার ভিডিও চেয়েছিলাম। তারা পাঠিয়েছেন এবং উৎসব কমিটি দেখে নির্বাচন করেছে। আসলে এ কাজটি শুরু করতে হয়েছে প্রায় এক বছর আগে থেকে। কারণ বিদেশি দলগুলোর সিডিউল একটা মূল বিষয়। আর আমাদের দেশে বিদেশি দল আনতে গেলে যে প্রক্রিয়া, তা অনেক দীর্ঘ ও ঝামেলাপূর্ণ। সংস্কৃতিবিষয়ক মন্ত্রণালয়, স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়, এসবি, এনএসআই ও জাতীয় রাজস্ব বোর্ডের ছাড়পত্র দরকার হয় অনুমতিপত্র পাওয়ার ক্ষেত্রে।

নাট্যকর্মশালায় নাট্যকর্মী নির্বাচন প্রক্রিয়া ও প্রশিক্ষণ নিয়ে সংক্ষেপে বলুন।

এটি আমাদের নিয়মিত আয়োজন। প্রতিটি নাট্যদলই তা করে থাকে। উৎসব ও নতুন প্রযোজনা সামনে রেখে এবারের আয়োজন। নাটকের প্রতি আগ্রহ ও অংশগ্রহণকারীদের রাজনৈতিক দৃষ্টিভঙ্গিটাকে আমরা সাধারণ প্রাধান্য দিয়ে প্রশিক্ষণার্থী নির্বাচন করে থাকি। আর এই প্রশিক্ষণের ভেতর দিয়ে অংশগ্রহণকারীরা সংগঠনের কাজের সঙ্গে যুক্ত হন।

মাস্টার্স ক্লাস বিষয়টি ঠিক কী এবং আয়োজনটাই বা কী রকম?

এটি আসলে নতুন কোনো বিষয় নয়। বিভিন্ন বিশেষজ্ঞ থিয়েটার সম্পর্কিত কোনো কিছুর ওপর বলেন এবং সেটি একটি নিয়মতান্ত্রিকতার ভেতর দিয়ে চলমান হয়। পুরো পৃথিবীতে উৎসব কেন্দ্র করে এই ধরনের মাস্টার্স ক্লাস অনুষ্ঠিত হয়। বিভিন্ন দেশ থেকে আসা নাটকের এই বিশেষজ্ঞদের নিয়ে আমাদের এ আয়োজন। এই আয়োজন চট্টগ্রামের নাট্যকর্মী ও নাট্যশিক্ষার্থীদের সমৃদ্ধ করবে নিঃসন্দেহে।

নান্দীমুখ উৎসবে বাংলাদেশ গ্রুপ থিয়েটার ফেডারেশান কতটা ভূমিকা রাখছে?

এটি নান্দীমুখের নিজস্ব আয়োজন। নান্দীমুখ বাংলাদেশ গ্রুপ থিয়েটার ফেডারেশানের সক্রিয় সদস্য মাত্র। ফেডারেশানের পক্ষে তো সম্ভব নয় তার ৩৫০টিরও অধিক সদস্যের নাট্যোৎসবে ভূমিকা রাখা। আর এটা ফেডারেশানের কাজও নয়। ফেডারেশানের কর্মকর্তারা ব্যক্তিগতভাবে সহযোগিতা করতে পারেন মাত্র।

advertisement