advertisement
advertisement
advertisement
advertisement

ক্ষমা চাইলে বাংলার মানুষ নৌকাকে ফেরাবে না: স্বপন

সোনাইমুড়ী (নোয়াখালী) প্রতিনিধি
২৪ নভেম্বর ২০২২ ০৬:৫৩ পিএম | আপডেট: ২৪ নভেম্বর ২০২২ ০৬:৫৩ পিএম
সোনাইমুড়ীতে উপজেলা আওয়ামী লীগের ত্রিবার্ষিক সম্মেলনে বক্তব্য দেন জাতীয় সংসদের হুইপ আবু সাঈদ আল মাহমুদ স্বপন
advertisement

মানুষের কাছে ক্ষমা চেয়ে নৌকায় ভোট চাইতে নেতাকর্মীদের আহ্বান জানিয়েছেন আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক ও জাতীয় সংসদের হুইপ আবু সাঈদ আল মাহমুদ স্বপন।

আজ বৃহস্পতিবার দুপুর ২টার দিকে নোয়াখালীর সোনাইমুড়ী উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে উপজেলা আওয়ামী লীগের ত্রিবার্ষিক সম্মেলনে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ আহ্বান জানান।

advertisement

নেতাকর্মীদের উদ্দেশে আবু সাঈদ আল মাহমুদ স্বপন বলেন, ‘দয়া করে অহংকার করবেন না। এখন থেকে জনগণের দুয়ারে যান। ভুল মানুষ করে, ভুল ফেরেশতা করে না। ভুল মানুষ করে, মানুষ আশরাফুল মাখলুকাত। মানুষের দুয়ারে যান, তাদের বুঝান তাদের কাছে ক্ষমা প্রার্থনা করেন। আমি বিশ্বাস করি বাংলার মানুষের কাছে যদি আমরা স্যরি বলে ক্ষমা প্রার্থনা করি, বাংলার মানুষ নৌকা মার্কাকে ফিরিয়ে দেবে না।’

advertisement 4

জাতীয় সংসদের হুইপ বলেন, ‘আওয়ামী লীগের মতো ঐতিহ্যবাহী-সংগ্রামী দলেও কিছু মন্দ মানুষ আছে। দুই-চারজনের কারণে আমাদের শাস্তি দেবেন না। আমাদের ওপর অভিমান করলে দেশের প্রতি শাস্তি প্রদান করা হবে। আওয়ামী লীগের আন্তরিকতা ও একাগ্রতার কোনো ঘাটতি নেই। দলগত হিসেবে আওয়ামী লীগ বাঙালির সবচেয়ে আপন রাজনৈতিক দল। বাংলাদেশ যে স্বপ্ন দেখে, আওয়ামী লীগ সেই স্বপ্ন সম্ভব করে।’

তিনি আরও বলেন, ‘শেখ হাসিনা ক্ষমতা ভোগ করার জন্য প্রধানমন্ত্রী হননি। তিনি প্রধানমন্ত্রী হওয়ার জন্য রাজনীতি করেন না। তিনি বাংলার মানুষের মুখে হাসি ফোটানোর জন্য রাজনীতি করেন। তার মতো দক্ষ রাষ্ট্রনেতা, অভিজ্ঞ রাষ্ট্রনেতা পৃথিবীতে কম আছে। বাংলার মানুষের নিরাপত্তা দেওয়ার জন্য তিনি নির্ঘুম রাত্রিযাপন করেন। বঙ্গবন্ধু কন্যা ছাড়া এ মুর্হূতে বাংলার মানুষের মুখে হাসি ফোটাবে—এমন কোনো নেতা নেই। এ জন্য আমাদের একজন নেতার ওপর অভিমান করে দয়া করে সিন্ধান্ত নিতে ভুল করবেন না।’    

সোনাইমুড়ী উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি মমিনুল ইসলাম বাকেরের সভাপতিত্বে সাধারণ সম্পাদক আ ফ ম বাবুল বাবুর সঞ্চালনায় এ সময় আরও বক্তব্য দেন সাবেক সংসদ সদস্য মাহমুদুর রহমান বেলায়েত, সংরক্ষিত নারী আসনের সংসদ সদস্য ফরিদা খানম, নোয়াখালী ২ আসনের সংসদ সদস্য মোরশেদ আলম, স্থানীয় সংসদ সদস্য এইচ এম ইব্রাহিম, জেলা আওয়ামী লীগের আহ্বায়ক এ এইচ এম খায়রুল আনম চৌধুরী সেলিম, যুগ্ম আহ্বায়ক শিহাব উদ্দিন শাহীন, সহিদ উল্যাহ্ খান সোহেল, জেলা আওয়ামী লীগের সদস্য ও প্রধানমন্ত্রীর ব্যক্তিগত সহকারী জাহাঙ্গীর আলম, জেলা আওয়ামী লীগের সদস্য খন্দকার রুহুল আমিন ও ফুয়াদ হোসেন।

সম্মেলন শেষে বেলা আড়াইটার দিকে নেতাদের সিদ্ধান্ত অনুযায়ী সোনাইমুড়ী উপজেলা আওয়ামী লীগের বর্তমান সভাপতি মমিনুল ইসলাম বাকেরকে সভাপতি ও সম্পাদক আ ফ ম বাবুল বাবুকে পুনরায় সাধারণ সম্পাদক ঘোষণা করা হয়।

advertisement