advertisement
advertisement
advertisement

পুলিশের ধাওয়া খেয়ে নদীতে পড়া সেই যুবকের লাশ উদ্ধার

দৌলতখান (ভোলা) প্রতিনিধি
২৭ নভেম্বর ২০২২ ০৩:৪৬ পিএম | আপডেট: ২৭ নভেম্বর ২০২২ ০৩:৪৭ পিএম
প্রতীকী ছবি
advertisement

ভোলার দৌলতখান উপজেলায় পুলিশের ধাওয়া খেয়ে মেঘনা নদীতে পড়ে নিখোঁজ হওয়ার তিনদিন পর মো. নোমান (২৭) নামে এক যুবকের লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। আজ রোববার সকালে উপজেলার স্লুইজ ঘাট সংলগ্ন মেঘনা নদী থেকে তার মরদেহ উদ্ধার করা হয়।

নোমান চরখলিফার ৯ নম্বর ওয়ার্ডের সুকদেব স্কুল মোড় এলাকার বাসিন্দা। তিনি পাতারখাল মাছ ঘাটে কাজ করতেন।

advertisement

স্থানীয় ও পুলিশ সূত্রে জানা যায়, গত বৃহস্পতিবার (২৪ নভেম্বর) দুপুরে দৌলতখান পৌরসভার ১ নম্বর ওয়ার্ডে নদীর পাড়ে জুয়ার আসরে অভিযান চালায় থানা পুলিশ। এ সময় পুলিশের ধাওয়া খেয়ে চার যুবক নদীতে ঝাঁপ দেন। তাদের মধ্যে তিনজন উদ্ধার হলেও পুলিশ, ফায়ারসার্ভিস ও স্থানীয়রা খুঁজেও তার সন্ধান পায়নি।

advertisement 4

পরে নিখোঁজ নোমানের স্ত্রী নাসরিন আক্তার বাদী হয়ে দৌলতখান থানায় একটি অপমৃত্যুর মামলা দায়ের করেন।

এ ঘটনায় দৌলতখান থানার উপপরিদর্শক (এসআই) স্বরূপ কান্তি, সোহেল রানা, সহকারী উপপরিদর্শক (এএসআই) রাসেল ও সজিবকে বরখাস্ত করা হয়েছে।

দৌলতখান থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) জাকির হোসেন জানান, মেঘনায় ভাসছিল যুবকের মৃতদেহ। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে তার লাশ উদ্ধার করে।

advertisement