advertisement
advertisement
advertisement

চট্টগ্রামে পুলিশ-বিএনপি সংঘর্ষ, আহত ৩০

চট্টগ্রাম ব্যুরো
১৬ জানুয়ারি ২০২৩ ০৮:৩৪ পিএম | আপডেট: ১৬ জানুয়ারি ২০২৩ ১০:৪৬ পিএম
চট্টগ্রামে পুলিশ-বিএনপি সংঘর্ষ। ছবি: সংগৃহীত
advertisement

চট্টগ্রাম নগরীর কাজির দেউড়ি এলাকায় পুলিশের সঙ্গে বিএনপি নেতাকর্মীদের সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। এতে রণক্ষেত্রে পরিণত হয় পুরো এলাকা। আজ সোমবার বিকেল ৩টায় এই সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। এতে উভয়পক্ষের অন্তত ২৫ থেকে ৩০ জন আহত হয়েছেন। এ ঘটনায় পুলিশ ১৬ জনকে আটক করেছে।

জানা গেছে, আজ বিকেলে দলীয় কার্যালয় নাসিমন ভবনের সামনে বিক্ষোভ সমাবেশের ডাক দেয় বিএনপি। বিদ্যুতের দাম বৃদ্ধির প্রতিবাদে কেন্দ্রীয় কর্মসূচির অংশ হিসাবে এ সমাবেশ ডাকা হয়। এ সময় সমাবেশে যোগ দিতে আসা নেতাকর্মীরা পুলিশকে লক্ষ্য করে ইটপাটকেল ছুড়লে সংঘর্ষের সূত্রপাত হয়। তবে বিএনপির দাবি মিছিল বাধা দিয়ে পুলিশ লাঠিচার্জ করলে সংঘর্ষ বাধে।    

advertisement

কোতোয়ালী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) জাহেদুল কবির আমাদের সময়কে জানান, শান্তিপূর্ণ সমাবেশ করা কথা ছিল বিএনপির। তারা সমাবেশের নামে বিশৃঙ্খলা করেছে। বিভিন্ন ব্যবসা প্রতিষ্ঠান ও গাড়ি ভাঙচুর করে। পুলিশ পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে ধাওয়া দিয়েছে। পুলিশকে লক্ষ্য করে ইটপাটকেল ছুড়লে কয়েকজন সদস্য আহত হয়। পরে কাজির দেউড়ি এলাকায় অভিযান চালিয়ে ১৬ জনকে আটক করে পুলিশ। তাদের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করা হবে।

advertisement 4

চট্টগ্রাম নগর বিএনপির সদস্য সচিব আবুল হাশেম বক্কর জানিয়েছেন, আজকের এই সংষর্ষে বিএনপির অন্তত ৩৫ জন নেতাকর্মী পুলিশের লাঠিচার্জ ও গুলিতে আহত হয়েছে। আহতদের মধ্য দশজন গুলিবিদ্ধ। তারা বিচ্ছিন্নভাবে বিভিন্ন হাসপাতালে চিকিৎসা নিচ্ছেন।

তিনি আরও বলেন,‌‘পূর্ব ঘোষিত কর্মসূচি হিসেবে আজ সমাবেশের অনুমতি দিয়েছিল প্রশাসন। শান্তিপূর্ণ সমাবেশ চলছিল নাসিমন ভবনের সামনে। সমাবেশে আসার সময় কাজির দেউড়ি এলাকায় পুলিশ মিছিলে বাধা দিয়ে লাঠি চার্জ করে। তখন সংঘর্ষ বাধে। আমরা খবর পেয়ে সমাবেশ সংক্ষিপ্ত করেছি।’

তিনি জানান, আজকের সংষর্ষে বিএনপি নেতা জাহাঙ্গীর আলম, আনোয়ার, পারভেজ, যুবদল নেতা সোহেল, জাকির, ছাত্রদল নেতা জুয়েল মির্জা, রিয়াজ ও অমিত গুলিবিদ্ধ হয়েছে।

নগর বিএনপির আহ্বায়ক ডা. শাহাদাত হোসেনের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সমাবেশে বিএনপির চট্টগ্রাম বিভাগীয় সাংগঠনিক সম্পাদক মাহবুবুর রহমান শামীম প্রধান অতিথির বক্তব্য দেন।

advertisement